‘ছাত্রলীগের কমিটিতে ৯৯ জন বিতর্কিত ব্যক্তি রয়েছে’

পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে ১৭ জন নয়, ৯৯ জন বিতর্কিত ব্যক্তি রয়েছে বলে দাবি করেছেন পদবঞ্চিত ও কাঙ্ক্ষিত পদ না পাওয়া ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

গতকাল বুধবার ‘বিতর্কিতদের’ বাদ দিয়ে ছাত্রলীগের কমিটি পূর্ণাঙ্গ করতে আওয়ামী লীগের সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নির্দেশ দেন। এর প্রতিক্রিয়া জানাতে বৃহস্পতিবার (১৬ মে) দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যানটিনে সংবাদ সম্মেলন করে ছাত্রলীগের পদবঞ্চিত ও কাঙ্ক্ষিত পদ না পাওয়া বিক্ষুব্ধ অংশটি এ অভিযোগ করেন।

সংবাদ সম্মেলনে কবি জসীমউদদীন হল ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাহেদ খান বলেন, কমিটির বিষয়ে আমরা ৪৮ ঘণ্টার সময় বেঁধে দিয়েছিলাম। তবে আমাদের যৌক্তিক দাবির প্রতি সাড়া দিয়ে প্রধানমন্ত্রী কমিটি থেকে বিতর্কিতদের সরিয়ে যোগ্যদের স্থান করে দেওয়ার নির্দেশনা দিয়েছেন। সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদক গণমাধ্যমে ১৭ জনের নাম প্রকাশ করে আমাদের আন্দোলন যে যৌক্তিক তা-ই প্রমাণ করেছেন।

তিনি বলেন, ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী বলেছেন, যারা আন্দোলন করেছেন তাদের বিরুদ্ধে তিনি ব্যবস্থা নেবেন। কিন্তু আমরা তার কাছে বিনয়ের সঙ্গে জানতে চাই, যারা আমাদের বোনের ওপর হামলা করেছে তাদের বিরুদ্ধে তিনি কী ব্যবস্থা নিয়েছেন?

বিতর্কিতদের বাদ দিয়ে ছাত্রলীগের কমিটি পুনর্গঠনের নির্দেশ দেওয়ায় শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান তিনি। তিনি বলেন, কমিটি পুনর্গঠনের নামে ফের শেখ হাসিনার নির্দেশ অমান্য করা হলে তার শক্ত জবাব দিতে আমরা প্রস্তুত আছি।

পদবঞ্চিতদের পক্ষ থেকে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নেতৃত্বকে ‘ডোপ টেস্ট’ করানোর দাবি জানান ছাত্রলীগের বিগত কমিটির কর্মসূচি ও পরিকল্পনাবিষয়ক সম্পাদক রাকিব হোসেন।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন গত কমিটির প্রচার সম্পাদক সাঈফ বাবু, কর্মসূচি ও পরিকল্পনা বিষয়ক সম্পাদক রাকিব হোসেন, সুফিয়া কামাল হল শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ইফফাত জাহান এশা, ডাকসুর সদস্য তিলোত্তমা সিকদার, তানভীর হাসান সৈকত প্রমুখ।

মন্তব্য লিখুন :