ফের মারধরের শিকার, অনশনে ছাত্রলীগের পদবঞ্চিতরা

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসিতে হামলা ও মারধরের অভিযোগ গভীর রাতে রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে অবস্থান নিয়েছেন ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে পদবঞ্চিত ও প্রত্যাশিত পদ না পাওয়া অংশের সদস্যরা। নেতাকর্মীরা সরাসরি প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ ও আশ্বাস পেলে অনশন ভাঙবেন বলে ঘোষণা দিয়েছেন।

রবিবার (১৯ মে) সকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে এই ঘোষণা দেন তারা।

এর আগে শনিবার (১৮ মে) দিবাগত রাত দুইটার দিকে ছাত্রলীগের সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদকের কাছে বিতর্কিতদের বিরুদ্ধে তথ্যপ্রমাণ দিতে ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্রে (টিএসসি) আসেন তারা। সেখানে তাদের দাবি-দাওয়ার বিষয়ে আলোচনা হয়। আলোচনার একপর্যায়ে ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানীর সঙ্গে রোকেয়া হলের সভাপতি এবং ডাকসুর কমনরুম ও ক্যাফেটেরিয়া সম্পাদক বিএম লিপি আক্তারের কথা কাটাকাটি হয়। তখন গোলাম রাব্বানী লিপিকে চড় মারেন এবং অন্যদের ওপর হামলা চালান বলে লিপি অভিযোগ করেন। এতে পদবঞ্চিতদের ১৫ জন আহত হন বলেও জানান তারা।

লিপি আক্তারের পাশাপাশি শামসুননাহার হল ছাত্রলীগের সভাপতি ও নতুন কমিটির উপ সাংস্কৃতিক সম্পাদক নিপু ইসলাম তন্বী, ছাত্রলীগের বিগত কমিটির উপ অর্থ সম্পাদক ও নবগঠিত কমিটির উপ সাংস্কৃতিক সম্পাদক তিলোত্তমা শিকদার, বাংলাদেশ-কুয়েত মৈত্রী হল শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ও নতুন কমিটি উপ গ্রন্থনা ও প্রকাশনা সম্পাদক ফরিদা পারভীন, একই হল ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ও নতুন কমিটির উপ ছাত্রবৃত্তি বিষয়ক সম্পাদক শ্রাবণী শায়লা, শামসুন নাহার হল ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ও ছাত্রলীগের নতুন কমিটির উপ পাঠাগার বিষয়ক সম্পাদক জিয়াসমিন শান্তা, ছাত্রলীগের বিগত কমিটির সদস্য ও নতুন কমিটিতে পদবঞ্চিত জেরিন দিয়া, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাবেক উপ-প্রচার সম্পাদক শেখ আব্দুল্লাহ, সাবেক কেন্দ্রীয় আন্তর্জাতিক বিষয়ক উপসম্পাদক এমদাদ হোসেন সোহাগ, সাবেক কেন্দ্রীয় সহ সম্পাদক আজমীর শেখ রাতের ওই ঘটনায় লাঞ্ছিত হয়েছেন।

ওই ঘটনার প্রতিবাদে রাত ৩টার দিকে রাজু ভাস্কর্যে অবস্থান নেয় বিক্ষুব্ধরা। ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক দুজনেই সেখানে গিয়ে বিক্ষুব্ধদের চলে যাওয়ার অনুরোধ জানান। রাব্বানী 'স্যরি' বলে ‘ভুল স্বীকার’ করলেও বৃষ্টি উপেক্ষা করে বিক্ষুব্ধরা তাদের অবস্থান চালিয়ে যান সারা রাত।

পদবঞ্চিত আন্দোলনকারীদের মুখপাত্র ও ছাত্রলীগের গত কমিটির কর্মসূচি ও পরিকল্পনা বিষয়ক সম্পাদক রাকিব হোসেন বলেন,আমরা সরাসরি আপার (প্রধানমন্ত্রী) আশ্বাস চাই। আপা বললে আমরা অনশন ভাঙবো।

মন্তব্য লিখুন :