দ্বিতীয় মেঘনা ও গোমতী সেতুর উদ্বোধন আজ

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের দ্বিতীয় মেঘনা ও দ্বিতীয় গোমতী সেতু আজ যানবাহন চলাচলের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হবে। পাশাপাশি উদ্বোধন করা হবে নির্মাণাধীন ঢাকা-টাঙ্গাইল চার লেন মহাসড়কের কোনাবাড়ী ও চন্দ্রায় দুটি ফ্লাইওভার, কালিয়াকৈর, দেওহাটা, মির্জাপুর ও ঘারিন্দায় চারটি আন্ডারপাস এবং কড্ডা ও বাইমাইলে দুটি সেতু। ঢাকা-পঞ্চগড় রুটের নতুন ট্রেন ‘পঞ্চগড় এক্সপ্রেস’ ট্রেনও উদ্বোধন হচ্ছে আজ।

শনিবার (১৫ মে) সকালে ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এসব অবকাঠামো ও পরিবহন উদ্বোধন করবেন। সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় এবং রেলপথ মন্ত্রণালয় সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগ সূত্রে জানা যায়, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের চার লেনবিশিষ্ট দ্বিতীয় মেঘনা সেতুর দৈর্ঘ্য ৯৩০ মিটার। ১১টি পিয়ার ও দুটি অ্যাপার্টমেন্ট জয়েন্টের ওপর নির্মিত সেতুটি নির্মাণে ব্যয় হয়েছে ১ হাজার ৮০০ কোটি টাকা। পুরনো মেঘনা সেতু পুনর্বাসনের জন্য ব্যয় হবে আরো ৪০০ কোটি টাকা। সেতুর ঢাকা প্রান্তে প্রায় এক কিলোমিটার এবং চট্টগ্রাম প্রান্তে এক কিলোমিটার সংযোগ সড়ক ও পশ্চিম পাশে সেতুর নিচ দিয়ে ৫০৭ মিটার সড়ক নির্মাণ করা হয়েছে।

অন্যদিকে দ্বিতীয় মেঘনা-গোমতী সেতুর দৈর্ঘ্য ১ হাজার ৪১০ মিটার। পিয়ার সংখ্যা ১৬টি। এটি নির্মাণে ব্যয় হয়েছে ২ হাজার কোটি টাকা। এছাড়া পুরনো মেঘনা-গোমতী সেতু পুনর্বাসনের জন্য ব্যয় হবে ৪০০ কোটি টাকা।

মন্তব্য লিখুন :