তিউনিসিয়া উপকূলে ডুবে যাওয়া নৌকায় বাংলাদেশিও ছিল!

ভূমধ্যসাগরের তিউনিসিয়া উপকূলে শরণার্থীবাহী একটি নৌকাডুবির ঘটনায় প্রায় ৭০জনের প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে। সেই নৌকায় বাংলাদেশি শরণার্থীরাও ছিলেন বলে জানিয়েছে ইউএনএইচসিআর।

শুক্রবার (১০ মে) সকালে টিউনেসিয়া সমুদ্র উপকূল থেকে প্রায় ৪৫ নটিক্যাল মাইল দূরে ৬৫ জন শরণার্থীসহ নৌকাডুবির এ ঘটনা ঘটে। এখন পর্যন্ত ১৬ জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘের আন্তর্জাতিক শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআর।

এদিকে টিউনেসিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রাণলয় জানিয়েছে, হতাহতদের উদ্ধারে অভিযান চলছে। এখন পর্যন্ত তিনজনের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে তারা।

উদ্ধারকৃত এক শরণার্থীর উদ্ধৃতি দিয়ে ইউএনএইচসিআর জানায়, নৌকায় করে ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে ইউরোপে প্রবেশের লক্ষ্যে আফ্রিকার সমুদ্র উপকূলবর্তী দেশ লিবিয়ার যুয়ারা এলাকা থেকে প্রায় ৬৫ জনের একটি দল বৃহস্পতিবার সন্ধায় যাত্রা করে৷ শুক্রবার সকালে অভিবাসন প্রত্যাশীদের দলটি টিউনিসিয়া উপকূলের কাছাকাছি আসলে সমুদ্রের বড় ঢেউয়ের ধাক্কায় তাদেরকে বহনকারি নৌকাটি উল্টে যায়।

এ সময় টিউনিসিয়া উপকূলে মাছ ধরার একটি নৌকার জেলেরা তাৎক্ষণিকভাবে ১৬ জনকে উদ্ধার করতে সমর্থ হন বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা এএফপি। নৌকায় করে এ শরণার্থীরা ইটালি যাওয়ার চেষ্টা করছিল বলে জানা গেছে।

এদিকে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, নৌকাটিতে বাংলাদেশি ও মরুক্কোর নাগরিকসহ আরো কয়েকটি দেশের শরণার্থী ছিলেন। তবে নৌকাটিতে ঠিক কতজন বাংলাদেশি বা কোন দেশের কতজন নাগরিক ছিলেন সে বিষয়ে সঠিক তথ্য পাওয়া যায়নি। 

মন্তব্য লিখুন :