মিষ্টির সাথে জীবন্ত তেলাপোকা ফ্রি!

অনেকটা জেনেশুনেই যেন প্রতিদিন বিষ খেতে হচ্ছে আমাদের। নোংরা-অপরিচ্ছন্ন পরিবেশেই তৈরি হচ্ছে সেমাইসহ নানা খাবার। যেসব ব্রান্ডের খাবারের দোকানের ওপর নির্ভর করছি, তারা কি খাওয়াচ্ছে আমাদের? সাম্প্রতিক বিভিন্ন অভিযান কিন্তু আমাদের কোনো সুখবর দিতে পারছে না।

রোববার দুপুরে যাত্রাবাড়ী চৌরাস্তায় বিক্রমপুর ভাগ্যকুল মিষ্টান্ন ভাণ্ডারে অভিযান চালায় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা।

অভিযানে দেখা যায়, অস্বাস্থ্যকর পরিবেশতো বটেই, মিষ্টির মধ্যেই দেখা গেল অসংখ্য জীবন্ত তেলাপোকা। পরে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মাসুম আরেফিন প্রতিষ্ঠানটিকে দেড় লাখ টাকা জরিমানা করেন।

জরিমানার পাশাপাশি অভিযানে বিভিন্ন ধরণের প্রায় তিন মণ মিষ্টি ধ্বংস করে বাজার মনিটরিং টিমের সদস্যরা।

এরপর রাজধানীর ধোলাইপাড়ে আদি বনফুল মিষ্টান্ন ভাণ্ডারের কারখানায় অভিযান চালানো হয়। নোংরা ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে মিষ্টি তৈরির অভিযোগে সেখানে এক লাখ টাকা জরিমানা করেন বাজার মনিটরিং টিমের সদস্যরা।

একই মার্কেটে প্যাকেটের ওজন বাড়িয়ে পণ্য কম দেয়ার অভিযোগে এক ফল ব্যবসায়ীকে দুই হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।অসাধু ব্যবসায়ীদের দৌরাত্ম্য দেখা যায় যাত্রাবাড়ীর চৌরাস্তা কাঁচা বাজারেও। সেখানে খাশির মাংসের ভেতরে পানি ঢুকিয়ে ওজন বাড়ান কয়েজন অসাধু ব্যবসায়ী। বিষয়টি নজরে এলে জড়িত তিন ব্যবসায়ীকে ১৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

ভোক্তাদের মানসম্মত ও নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিতে রোববার রাজধানীর ধোলাইপাড় যাত্রাবাড়ী এলাকায় এই অভিযান চালায় বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের বাজার মনিটরিং টিম।অভিযানের নেতৃত্ব দেন ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মাসুম আরেফিন। সঙ্গে ছিলেন সিটি করপোরেশনসহ বিভিন্ন সেবা সংস্থার প্রতিনিধি।

মন্তব্য লিখুন :