ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা

আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অনুমোদনক্রমে পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করেছে ছাত্রলীগ। আগামী দুই বছরের জন্য এই কমিটি অনুমোদন দেওয়া হয়।

সোমবার (১৩ মে) প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি অনুমোদন দেয়া হয়।

২০১৮ সালের ৩১ জুলাই মো. রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভনকে সভাপতি এবং গোলাম রাব্বানীকে সাধারণ সম্পাদক করে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের কমিটি অনুমোদন দেন শেখ হাসিনা। ওইদিন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এবং ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণের কমিটিও অনুমোদন দেয়া হয়।

সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভনের সঙ্গে সহ-সভাপতি পদে রয়েছেন ৬১ জন।

সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানির সঙ্গে যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রয়েছেন ১১ জন।

সাংগঠনিক সম্পাদক পদে রয়েছেন মোট ১১জন।

ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক হয়েছেন আল-আমীন সিদ্দিক সুজন। তার সঙ্গে উপ -ক্রীড়া সম্পাদক পদে রয়েছেন আরও তিনজন।

বিজ্ঞান বিষয়ক সম্পদক সাদুন মোস্তফার সঙ্গে উপ-বিজ্ঞান বিষয়ক সম্পাদক রয়েছেন আরও চারজন।

আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক মোহাম্মদ রাকিনুল হক চৌধুরী। যার কমিটিতে উপ-সম্পাদক হিসেবে রয়েছেন আরও ৫ জন।

পাঠাগার সম্পাদক হয়েছেন জাভেদ হোসেন। সঙ্গে রয়েছেন উপ-সম্পাদক হিসেবে ৫ জন।

তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক পল্লব কুমার বর্মন। এই কমিটিতে উপ-সম্পাদক হয়েছেন আরও ৩জন।

তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ক কমিটিতে সম্পাদক হয়েছেন শাকিল আহমেদ জুয়েল।  এই কমিটিতে ‍উপ-সম্পাদক হয়ে আরও রয়েছেন ৫ জন।

ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক তাজ উদ্দিন। তার সঙ্গে রয়েছেন ৪ জন উপ-সম্পাদক।

গণশিক্ষা বিষয়ে সম্পাদক হয়েছেন আবদুল্লাহিল বারী। উপসম্পাদক রয়েছেন ৩ জন।

ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সম্পাদক হয়েছেন ইমরান জমাদ্দার। সঙ্গে উপ-সম্পাদক রয়েছেন ৪ জন।

স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা সেবা বিষয়ক সম্পাদক হয়েছেন শাহরিয়ার ফেরদৌস হিমেল। সঙ্গে রয়েছেন ৪ উপসম্পাদক।

সাহিত্য বিষয়ক সম্পাদকের দায়িত্ব পেয়েছেন আসিফ তালুকদার। সঙ্গে রয়েছেন ৩ উপসম্পাদক।

প্রশিক্ষণ বিষয়ক সম্পাদক হয়েছেন হায়দার মোহাম্মদ জিতু। সঙ্গে রয়েছেন ৩ জন উপ-সম্পাদক।

কর্মসংস্থান বিষয়ক সম্পাদক পদে দায়িত্ব পেয়েছেন মোহাম্মদ রণি। এছাড়া এই কমিটিতে উপ-সম্পাদক হয়েছেন ৪ জন।

নাট্য ও বিতর্ক বিষয়ক সম্পাদক হয়েছেন জুয়েল মোল্লা। তার সঙ্গে রয়েছেন ৩ জন উপ-সম্পাদক।

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় বিষয়ক সম্পাদক হয়েছেন আসিফ ইকবাল অনিক। সঙ্গে রয়েছেন ৫ উপ-সম্পাদক।

আপ্যায়ন সম্পাদক হয়েছেন আশরাফুল ইসলাম ফাহাদ। সঙ্গে রয়েছেন ৪ উপ-সম্পাদক।

মেহেদী হাসান তাপস পেয়েছেন মুক্তিযুদ্ধ ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদকের দায়িত্ব। সঙ্গে রয়েছেন চার উপ-সম্পাদক।

মানব সম্পদ উন্নয়দ সম্পাদক হয়েছেন নাহিদ হাসান শাহিন। সঙ্গে রয়েছেন ৪ উপ-সম্পাদক।

ছাত্র-বৃত্তি সম্পাদক হযেছেন আতাউল গনি কৌশিক। সঙ্গে রয়েছে ৪ উপ-সম্পাদক।

কৃষি-শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদকের দায়িত্ব পেয়েছেন মাকসুদুর রহমান মিঠু। সঙ্গে রয়েছেন উপ-সম্পাদক পদে আরও তিন জন।

কর্মসূচি ও পরিকল্পনা সম্পাদক হয়েছেন সাদ্দাম হোসেন। সঙ্গে রয়েছেন আরও চার জন।

সহ-সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পেয়েছেন মোট ২৩ জন।

কমিটির অন্তত ১২ জন নির্বাহী সদস্যের তালিকাও গণমাধ্যমের হাতে রয়েছে।

মন্তব্য লিখুন :