জঙ্গিবাদের শঙ্কা, ফের ভাড়াটিয়াদের তথ্য সংগ্রহে পুলিশ

ফের যেন জঙ্গিবাদ মাথাচাড়া দিয়ে উঠতে না পারে সে জন্য সিটিজেন ইনফরমেশন ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমের (সিআইএমএস) মাধ্যমে ভাড়াটিয়াদের তথ্য সংগ্রহ অভিযান শুরু করেছে ডিএমপি।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া শনিবার (১৫ জুন) বেলা ১১টার দিকে ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে ‘নাগরিক তথ্য সংগ্রহ সপ্তাহ-২০১৯’-এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে  তিনি এ তথ্য জানান।

১৪ জুন থেকে আগামী ২১ জুন পর্যন্ত তথ্য না দেওয়া ভাড়াটিয়াদের পুনরায় তথ্য সংগ্রহ অভিযান শুরু করেছে ডিএমপি।

ডিএমপি কমিশনার বলেন, ইদানীং আমরা লক্ষ করছি, ভাড়াটিয়াদের তথ্য সংগ্রহের কাজটি ঢিলা হয়ে গেছে। অনেক ভাড়াটিয়া বা নাগরিকরা এখন তথ্য দিচ্ছে না। আমাদের পুলিশের মধ্যেও একটা ঢিলেঢালা ভাব লক্ষ করছি। যে কারণে ইদানীং আমরা আবার সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ ও মাদকের একটি হুমকি অনুভব করছি। এই প্রেক্ষাপটে কাজটি আমরা আবার শুরু করেছি।

তিনি বলেন, ভাড়াটিয়াদের তথ্য সংগ্রহ করার কারণে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হয়েছে। ডিএমপির প্রত্যেকটি থানার যে সাত-আটটি করে বিট রয়েছে, সেই বিটভিত্তিক কাজগুলো আমরা ভাগ করে দেব। যে বিটে আট-দশজন পুলিশ দায়িত্বপ্রাপ্ত হবেন তাঁরা ওই এলাকায় প্রত্যেকটি বাড়ি গিয়ে তল্লাশি করবেন। সবার সঙ্গে কথা বলে যারা এই ফরম জমা দেয়নি তাদেরকে ফরম সরবরাহ করবেন এবং তথ্য নিয়ে এসে আমাদের সিস্টেমে সংযুক্ত করবেন।

নগরবাসীকে তথ্য দিতে অনুরোধ করে ডিএমপি কমিশনার বলেন, আপনার তথ্য পুলিশের কাছে জমা দিয়ে পুলিশকে সহযোগিতা করুন, নিজে নিরাপদ থাকুন, নগরবাসীকে নিরাপদ রাখুন। পুলিশ ও নাগরিকদের যৌথ অংশীদারির ভিত্তিতে টেকসই নিরাপত্তা ব্যবস্থা গড়ে তুলতে পারব।

মন্তব্য লিখুন :