পদ্মা সেতু গুজব আতঙ্কে ঘি ঢাললেন হাটহাজারীর ইউপি সদস্য!

পদ্মা সেতু নির্মাণে মানুষের মাথা লাগবে। এমন গুজবে দেশবাসী তথা জনসাধারণ যখন ছেলে ধরা আতঙ্কে আতঙ্কগ্রস্ত।

ঠিক তখনি সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুক গুজব আতঙ্কে ঘি ঢাললেন মো. আলমগীর হোসেন নামে এক ইউপি সদস্য। তবে তিনি ফেসবুকে এ রকমের আতঙ্ক ছড়িয়ে রেহাই পাননি।

এমন কাজের জন্য তাকে গ্রহণ করতে হয়েছে স্থানীয় প্রশাসনের কারণ দর্শানোর নোটিশ।

বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলা প্রশাসনের নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রুহুল আমিন ওই ইউপি সদস্যকে এ কারণ দর্শানোর নোটিশ প্রদান করেন।

ইউপি সদস্য আলমগীর হোসেন উক্ত উপজেলার ১১নং ফতেপুর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য বলে জানা গেছে।

বিষয়টির ব্যাপারে জানতে চাইলে ইউএনও রুহুল আমিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, মঙ্গলবার সকাল ৭টা ৪৫ ও ৭টা ৫১ মিনিটে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে ‘পদ্মা সেতৃর জন্য মানুষের মাথা লাগবে’ ও ‘গুজব নয় সত্যি, রক্ত চায় পদ্মা সেতু! ঘর ছাড়া শতাধিক পরিবার’ শিরোনামে দুইটি ছবি পোস্ট করে মিথ্যা গুজব ছড়িয়েছে।

তিনি আরও বলেন, তিনি একজন জনপ্রতিনিধি হয়ে এ ধরনের মিথ্যা গুজব ছড়িয়ে জনমতে উৎকণ্ঠ ও উদ্বেগ সুষ্টি করেছে। যা অনভিপ্রেত এবং চরম দায়িত্বজ্ঞানহীন কর্মকাণ্ডের শামিল। এ ধরনের মিথ্যা তথ্য পোস্ট করার কারণে তার বিরুদ্ধে কেন আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে না কেন পত্রপ্রাপ্তির তিন দিনের মধ্যে কারণ দর্শানোর জন্য বলা হয়েছে।

এছাড়া পদ্মা সেতু নির্মাণকাজ পরিচালনায় মানুষের মাথা লাগবে বলে একটি কুচক্রী মহল বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে অপপ্রচার চালাচ্ছে উল্লেখ করে ইউএনও বলেন, আমরা স্পষ্টভাবে বলতে চাই, এটি একটি গুজব। এর কোনো সত্যতা নেই। এমন অপপ্রচার আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ। এ ধরনের গুজবে বিভ্রান্ত না হওয়ার জন্য সবার প্রতি অনুরোধ করছি।

মন্তব্য লিখুন :