পাটুরিয়া-দৌলতদিয়ায় যানজট, আটকে পড়েছে গরুবাহী ট্রাক

বৈরী আবহাওয়া, যানবাহনের অত্যাধিক চাপ, নদীতে প্রবল স্রোত এবং ঘন ঘন ফেরি বিকল হওয়ায় পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটে স্বাভাবিক ফেরি চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। ফলে দু’পারেই সৃষ্টি হয়েছে ভয়াবহ যানজটের। এতে আসন্ন পবিত্র ঈদুল আযহায় ঘরমুখো দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের যাত্রীদেরকে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার সকাল ৯টায় দৌলতদিয়া ঘাটে মহাসড়কের উপর ৪ কিলোমিটার এলাকায় দীর্ঘ সারিতে কোরবানির প্রাণীবাহী ট্রাকসহ বিভিন্ন ধরনের ৫ শতাধিক যানবাহন নদী পারের অপেক্ষায় আটকে রয়েছে। বুধবার রাতে আসা নৈশ কোচগুলো বৃহস্পতিবার সকালে পার হচ্ছে। এদিকে পাটুরিয়া ঘাটে বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই যানবাহনের চাপ বাড়ছে। 

বিআইডব্লিউটিসি সূত্রে জানাগেছে, দুর্যোগপূর্ণ আবওয়ার কারণে নদীতে উত্তাল ঢেউয়ের সৃষ্টি হলে বুধবার (৭ আগস্ট) বেলা ১১টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটে ৭ ঘন্টা ফেরি চলাচল বন্ধ ছিল। এছাড়া নদীতে প্রবোল স্রোতের কারণে ওই রুটে ফেরি চলাচল মারাত্মকভাবে ব্যাহত হচ্ছে। ফলে  ট্রাকসহ ওই রুটের সকল ধরনের যানবাহন দৌলতদিয়া ও পাটুরিয়া ঘাট দিয়ে পারাপার হওয়ার জন্য আসতে শুরু করেছে।

এতে এ রুটে যানবাহনের চাপ বেড়ে গেছে। বুধবার দুপুরের পর থেকে বাস ও ট্রাকের সারি পাটুরিয়া প্রান্তে দুই সাড়িতে ২ কিলোমিটার এবং দৌলতদিয়া প্রান্তে ঘাট এলাকা থেকে ক্যানাল ঘাট পর্যন্ত ৪ কিলোমিটার ছাড়িয়ে যায়। নৈশ কোচগুলো যথাসময়ে পার হতে না পেরে বৃহস্পতিবার সকাল ৮টার পর পার হচ্ছে।

বিআইডব্লিউটিসি’র পাটুরিয়া ঘাট ম্যানেজার মহিউদ্দিন রাসেল জানান, নদীতে অত্যাধিক স্রোতের কারণে ফেরি পারা-পারে দ্বিগুণ সময় লাগছে। ফেরিগুলো ইঞ্জিনের পুরো শক্তি ব্যবহার করেও স্রোতের বিপরীতে চলতে গিয়ে প্রতিদিনই বিকল হয়ে পড়ছে। পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌ-পথে চলাচলরত ছোট বড় মোট ১৯টি ফেরি মধ্যে ১৭টি চলাচল করছে। ইউটিলিটি ফেরি সন্ধ্যা মালতি এবং মাধবীলতা স্থানীয় ডকইয়র্ডে মেরামতে রয়েছে। এমতাবস্থায় পরিস্থিতি সামাল দিতে হিমশিম খেতে হচ্ছে।

বিআইডব্লিউটিসি’র মেরিন অফিসার আব্দুস ছোবাহান জানান, বুধবার বৈরী আবহাওয়ার জন্য স্বাভাবিক ফেরি চলাচলে একটু সমস্যা হয়েছে। পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটে বর্তমানে ১০টি রো-রো, ৭টি ইউটিলিটি ২টি কে-টাইপসহ মোট ১৯টি ফেরি চলাচল করছে। ঈদের আগে আরো ১টি ফেরি এ নৌ-বহরে যোগ হবে। আশা করি আবহাওয়া ভালো থাকলে ২০টি ফেরি  ঠিকমতো চললে যানবাহন পারাপারে কোন সমস্যা হবে না।

মন্তব্য লিখুন :