সরকারের কারসাজিতে ছাত্রদলের কাউন্সিলে স্থগিতাদেশ: রিজভী

জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের যষ্ঠ কেন্দ্রীয় কাউন্সিলকে নিয়ে আদালতের অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা গভীর চক্রান্তমূলক বলে মন্তব্য করে বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ বলেছেন, কোনো বিচার বিশ্লেষণ ও যুক্তিতর্ক ছাড়া ছাত্রদলের কাউন্সিল স্থগিতের আদেশ দেওয়া গভীর চক্রান্তমূলক। সরকারের কারসাজিতেই এ আদেশ প্রদান করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১২ সেপ্টেম্বর) রাতে রাজধানীর নয়াপল্টনস্থ দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত জরুরি সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন।

ছাত্রদলের কাউন্সিলকে নিয়ে আদালত যে স্থগিতাদেশ দিয়েছেন সেটাকে ‘অযৌক্তিক’ উল্লেখ করে রিজভী আহমেদ বলেন, ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদের সর্বশেষ বিলুপ্ত কমিটির সহ-ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক আমান উল্লাহর দায়ের করা মামলার প্রেক্ষিতে কাউন্সিল স্থগিতাদেশ সম্পূর্ণরূপে অযৌক্তিক। 

কারণ আমান উল্লাহ সেপ্টেম্বরের ১৪ তারিখে অনুষ্ঠিতব্য কাউন্সিলে প্রতিযোগী ছিলেন না এবং প্রতিযোগিতার জন্য আবেদন করেননি কিংবা তিনি কাউন্সিলরও নন। কোনো বিচার বিশ্লেষণ ও যুক্তিতর্ক ছাড়া তার করা মামলার প্রেক্ষিতে ছাত্রদলের কাউন্সিল স্থগিতের আদেশ দেওয়া গভীর চক্রান্তমূলক। সরকারের কারসাজিতেই এহেন আদেশ প্রদান করা হয়েছে।

বিএনপির এই নেতা বলেন, যখন কাউন্সিলের স্থগিতাদেশ আদেশ আনা হলো তখনই একটি বিশেষ চ্যানেলের ক্যামেরাও এসেছে, এ থেকে বোঝা যায় এটা একটা গভীর চক্রান্ত।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- খায়রুল কবীর খোকন, ফজলুল হক মিলন, আজিজুল বারী হেলাল, শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি, শফিউল বারী বাবু, সুলতান সালাহউদ্দিন টুকু, আব্দুল কাদির ভূইয়া জুয়েল, হাবিবুর রশীদ হাবিব, রাজিব আহমেদ, আব্দুস সাত্তার পাটোয়ারী, কাজী মোক্তার হোসাইন প্রমুখ।

মন্তব্য লিখুন :