রোহিঙ্গা ইস্যুতে লড়াই নয়, শান্তিপূর্ণ সমাধান চান প্রধানমন্ত্রী

রোহিঙ্গা ইস্যুতে কারও সঙ্গে লড়াই না করে এই সংকটের শান্তিপূর্ণ সমাধান চান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। 

সোমবার (৩০ সেপ্টেম্বর) ওয়াশিংটন পোস্টের সাপ্তাহিক সাময়িকী টুডে’স ওয়ার্ল্ড ভিউকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এ কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

তিনি বলেন, আমি কারও সঙ্গে লড়াইয়ে জড়াতে চাই না। আমি এই পরিস্থিতির শান্তিপূর্ণ একটি সমাধান চাই। কারণ, তারা (মিয়ানমার) আমার নিকটতম প্রতিবেশী। খবর বাসসের।

টুডে’স ওয়ার্ল্ড ভিউয়ের বৈদেশিক নীতিবিষয়ক সাংবাদিক ঈশান থারুরকে দেয়া সাক্ষাৎকারে প্রধানমন্ত্রী বলেন, রোহিঙ্গা সংকট বাংলাদেশের বোঝা হয়ে থাকতে পারে না।

এতে শেখ হাসিনার উদ্ধৃতি দিয়ে বলা হয়, যদি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় মনে করে, মিয়ানমারের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞায় কাজ হবে, তাহলে তো খুবই চমৎকার। তবে, আমি এই পরামর্শ দিতে পারি না।

শেখ হাসিনা জানান, তিনি এই ইস্যুটি নিয়ে মিয়ানমারের কার্যত বেসামরিক নেতা নোবেল বিজয়ী অং সান সুকির সঙ্গেও আলোচনা করেছেন। তিনি (সুকি) এই পরিস্থিতির জন্য দেশটির সামরিক বাহিনীকে দায়ী করেন। তিনি আমাকে বলেছেন যে, সেনাবাহিনী তার কথা খুব একটা শোনে না।

ভারতে ২০১৬ সালে আয়োজিত আন্তর্জাতিক শীর্ষ সম্মেলনকালে তাদের মধ্যে ওই বৈঠকটি হয়। এরপর থেকে সুকি দেশটির সামরিক বাহিনীর সিদ্ধান্তকেই সমর্থন দিয়ে যাচ্ছেন এবং এমনকি তিনি জাতিগত সংখ্যালঘু গোষ্ঠীটিকে বোঝাতে ‘রোহিঙ্গা’ শব্দটিও উচ্চারণ করেন না।

শেখ হাসিনা ওই সাক্ষাৎকারে বলেন, এখন আমি দেখতে পাচ্ছি যে তিনি (সুকি) তার অবস্থান থেকে সরে এসেছেন।

মন্তব্য লিখুন :