ব্যক্তিগত গাড়িতে বাড়ি ফিরতে বাধা নেই

ঈদের ছুটি কাটাতে এবারে প্রাইভেট কার, মাইক্রোবাস বা যেকোনো ব্যক্তিগত পরিবহনে ঢাকার বাইরে যেতে বা ঢাকার ভেতরে প্রবেশ করতে পারবে সাধারণ মানুষ।

তবে কোন গণপরিবহনকে এসব পথে চলাচল করতে দেয়া হবে না।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ হেডকোয়ার্টারের পক্ষ থেকে এই তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে।

সরকারের উচ্চ পর্যায় থেকে পুলিশের কাছে পাঠানো এক নির্দেশনায় বলা হয়েছে, পুলিশ সড়কে যাত্রীদের সব ধরণের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে কাজ করবে।

এরই মধ্যে ঢাকার ঢোকা এবং বেরুনোর সড়কগুলো থেকে চেকপোস্ট সরিয়ে নেয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

এর আগে পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) বেনজীর আহমেদ করোনাভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে ঈদে যাতে নিজ অবস্থান ছেড়ে কেউ গ্রামের বাড়ি না যেতে পারেন, সে ব্যাপারে বিভিন্ন জেলার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের নির্দেশ দিয়েছিলেন। ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলামও জরুরি প্রয়োজন ছাড়া যাতে কেউ ঢাকায় ঢুকতে কিংবা বের হতে না পারে, সে ব্যাপারে পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের নিরাপত্তাচৌকি (চেকপোস্ট) জোরদার করার নির্দেশ দেন।

ডিএমপির উপকমিশনার (গণমাধ্যম ও জনসংযোগ) মো. ওয়ালিদ হোসেন আজ শুক্রবার বলেন, সরকারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী যাঁরা বাড়ি যেতে চান, তাঁরা বাড়ি যেতে পারবেন। তবে গণপরিবহন বন্ধ থাকবে। পুলিশ চেকপোস্ট বসিয়ে নিরাপত্তা নিশ্চিত করবে।

করোনাভাইরাসের আরও ছড়িয়ে পড়া ঠেকাতে ঢাকা থেকে কাউকে বের হতে কিংবা ঢুকতে না দেয়ার এই নির্দেশনা দেয়া হয়েছিল।

এই নির্দেশনার তিন দিনের মাথায় এবার কড়াকড়ি শিথিল করার কথা বলা হচ্ছে। তবে সেটা শুধুমাত্র ব্যক্তিগত পরিবহনের ক্ষেত্রে।

তবে ব্যক্তিগত পরিবহনে যাতায়াতের ক্ষেত্রেও প্রত্যেককে যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানিয়েছে পুলিশ।