প্রেসক্লাবে সংঘর্ষের সময় জখম হাবিব-উন নবী সোহেল

প্রেসক্লাবে ছাত্রদল ও পুলিশের সংঘর্ষের সময় লাঠিপেটায় আহত হয়েছেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি হাবিব-উন নবী খান সোহেল।

অনুমতি ছাড়াই লেখক মুশতাক আহমেদের মৃত্যুর প্রতিবাদ ও সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের খেতাব বাতিলের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে রবিবার সকালে প্রেসক্লাবের সামনে ছাত্রদল সমাবেশের আয়োজন করে।

এ সময় পুলিশ তাদের বাধা দেয়। একপর্যায়ে পুলিশ লাঠিপেটা শুরু করে। নেতাকর্মীদের যাকে সামনে পায়, তাকে লাঠিপেটা করে। চলে পাল্টাপাল্টি ধাওয়া।
পুলিশের লাঠিপেটায় বিএনপি ও ছাত্রদলের ৩০ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন।

এ সময় নেতাকর্মীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল ছুড়তে থাকেন। তখন তাদের ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশ ফাঁকা গুলি ও কাঁদানে গ্যাসের শেল নিক্ষেপ করে।

উভয়পক্ষের সংঘর্ষের সময় কয়েকজন পুলিশ সদস্য ও সাংবাদিক আহত হয়েছেন বলে খবর পাওয়া গেছে।

বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির বলেন, পুলিশের হামলায় বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব হাবিব-উন নবী খান সোহেল মারাত্মক জখম হয়েছেন। তার কোমরে বেশ কয়েটি সেলাই লেগেছে।