ভারতের পর এবার নেপালেও নিষিদ্ধ হল পাবজি

বিভিন্ন নেতিবাচক দিক এবং তরুণ প্রজন্মকে পাবজি’র আশক্তি থেকে মুক্ত করতে ভারতের গুজরাটে পাবজি নিষিদ্ধ হওয়ার পর এবার পার্শ্ববর্তী দেশ নেপালেও নিষিদ্ধ করা হয়েছে জনপ্রিয় এই অ্যাকশান গেমটি।

মূলত স্বাস্থ্যগত ঝুঁকি, সহিংসতা এবং তরুণদের মাঝে এর ক্ষতিকর প্রভাব থেকে দূরে রাখতেই এই উদ্যোগটি নিয়েছে দেশটির সরকার।

রয়টার্সের বরাদ দিয়ে বৃহস্পতিবার (১১ এপ্রিল) দেশটির টেলিকমিউনিকেশন অধিদপ্তর পরিচালক সন্দীপ অধিকারী জানান, বর্তমান তরুণ প্রজন্ম এবং কিশোর-কিশোরীদের জন্য ক্ষতিকর পাবজি’র আশক্তি থেকে মুক্ত করার জন্য এই গেমটি নিষিদ্ধ করার আদেশ দিয়েছে সরকার।

তিনি বলেন, সকল ইন্টারনেট সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান, মোবাইল কোম্পানি এবং অপারেটরদের কে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে এই গেমটিকে নিষিদ্ধ করার জন্য।

কি এই পাবজি?

প্লেয়ার আননোওন'স ব্যাটলগ্রাউন্ড (পিইউবিজি বা পাবজি) একটি অনলাইন মাল্টিপ্লেয়ার অ্যাকশান গেম। যেখানে প্লেয়াররা ভার্চুয়াল জগতে মেতে উঠে সহিংসতায়। এই গেমে প্রতিনিয়ত নিজে টিকে থাকতে অন্যকে প্রতিহত করেই বেঁচে থাকতে হয় এখানে।

এছাড়া এর হাই রেজ্যুলেশন থ্রিডি গ্রাফিক্স ও ইন্টারেক্টেভি ফাংশনের জন্য গেমটি একটি আশক্তিতে পরিণত হয়েছে। সেই সাথে প্রতিদিন নতুন নতুন আপডেটে থাকে অ্যাডভেঞ্চারাস সব স্টেজ। যেগুলো উপভোগ করতে মরিয়া হয়ে থাকেন খেলোয়াড়রা।

ইতোমধ্যে ৭৩ শতাংশ পাবজি খেলোয়ার তাদের স্মার্টফোনেই খেলছেন গেমটি এবং বিশ্বব্যাপী ২০০ মিলিয়ন পাবজি খেলোয়াড় রয়েছে।

দক্ষিণ কোরিয়া ভিত্তিক ভিডিও গেম ডেভেলপার কোম্পানি ব্লুহোল ২০১৭-তে বাজারে ছাড়ে এই গেম।

মন্তব্য লিখুন :