চ্যাম্পিয়ন্স লীগে রিয়াল, সিটির গোল উৎসব

উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লীগে ভিক্টোরিয়া প্লাজেনকে ৫-০ গোলের ব্যবধানে উড়িয়ে দিয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। জোড়া গোল করেছেন করিম বেনজেমা। গোল করেছেন কাসেমিরো, গ্যারেথ বেল ও টনি ক্রুস। আর  ইউক্রেনের ক্লাব শাখতার দোনেস্ককে ৬-০ গোলে উড়িয়ে দিয়ে নকআউট রাউন্ড নিশ্চিত করে ম্যানচেস্টার সিটি। সিটির হয়ে হ্যাটট্রিক করেন গ্যাব্রিয়েল জেসুস। একটি করে গোল করেন রহিম স্টার্লিং, রিয়াদ মাহারেজ এবং ডেভিড সিলভা।

প্রথম ম্যাচেই লিওনের কাছে হেরে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ স্বপ্ন কঠিন করে তুলেছিল ম্যানসিটি। কিন্তু পরবর্তী তিনটি ম্যাচ টানা জিতে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের নকআউট রাউন্ডে জায়গা করে নিল পেপ গার্দিওলার দল। অন্যদিকে, সোলারির অধীনে কোপা দেল রের পর লা লিগা দিয়ে জয়ের ধারায় ফিরেছে রিয়াল মাদ্রিদ। কাল সোলারির চ্যাম্পিয়নস লিগ যাত্রাটাও হয়েছে শুভ।

বার্নাব্যুতে বেল-বেনজেমাদের আক্রমণে দিশেহারা প্লাজেন প্রথমার্ধেই ৪-০ গোলের ব্যবধানে পিছিয়ে পড়ে। ম্যাচের ২০তম মিনিটেই স্বাগতিকদের বুকে প্রথম ছুরি চালান বেনজেমা। এর মিনিট তিনেক পর কর্ণার থেকে গোল পান ক্যাসেমিরো। প্রথমার্ধের ৩৭ মিনিটে আবারও গোল পান বেনজেমা। মিনিট তিনেক পর বেনজেমার হেড থেকে বল পেয়ে ভলি করেন রিয়ালের আরেক ফরোয়ার্ড গ্যারেথ বেল। ব্যবধান বেড়ে দাঁড়ায় ৪-০–তে।

দ্বিতীয়ার্ধের ৬৭ মিনিটে প্লজেনের কফিনে শেষ পেরেক ঠোকেন টনি ক্রুস। পাল্টা আক্রমণে উঠে আসা রিয়ালের ভিনিসিয়াসের বাড়ানো বল জোরালো শটে জালে জড়ান ক্রুস।

এদিকে, ইতিহাদে  সার্জি আগুয়েরো, লেরয় সানে, ওতোমেন্দিদের বিশ্রামে রাখেন গার্দিওলা। ১৩ মিনিটে ডেভিড সিলভার গোলে এগিয়ে যায় সিটি। ২৪ মিনিটে ডি বক্সের ভেতর রহিম স্টার্লিংকে ফাউল করলে পেনাল্টি পায় সিটি। স্পটকিক থেকে দলকে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে দেন গ্যাব্রিয়েল জেসুস।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে মাঝমাঠ থেকে বল নিয়ে দুজনকে কাটিয়ে ডি বক্সের সামান্য বাইরে থেকে দারুণ এক গোল করেন রহিম স্টার্লিং। ৭১ মিনিটে ডেভিড সিলভাকে ডি বক্সে ফাউল করে আবারও সিটিকে পেনাল্টি উপহার দেয় শাখতার ডিফেন্ডাররা। স্পট কিক থেকে ম্যাচে নিজের দ্বিতীয় গোলটি করে দলকে ৪-০ ব্যবধানে এগিয়ে দেন হেসুস। ৮৪ মিনিটে রিয়াদ মাহরেজ সিটির হয়ে ৫ম গোলটি করেন।

ম্যাচের একদম শেষ মুহূর্তে মাঝ মাঠ থেকে দারুণ এক গোল করে নিজের হ্যাটট্রিক পূরণ করেন  করেন হেসুস।

মন্তব্য লিখুন :