ওয়েস্ট ইন্ডিজকে পাত্তাই দিল না বিসিবি একাদশ

ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাথে প্রস্তুতি ম্যাচে ৩৩২ রানের বিশাল টার্গেট পেয়েও তামিম ইকবাল ও সৌম্য সরকারের দুর্দান্ত সেঞ্চুরিতে দারুণ একটি জয় পেয়েছে বিসিবি একাদশ। আলোকস্বল্পতার কারণে খেলা বন্ধ হয়ে গেলে ডিএল ম্যাথডে ৫১ রানের জয় পায় বাংলাদেশ।

বৃহস্পতিবার (৬ ডিসেম্বর) সকালে ওয়ানডে সিরিজকে সামনে রেখে বিকেএসপির মাঠে প্রস্তুতি ম্যাচটি শুরু হয়। এতে জাতীয় দলে খেলা ৮ খেলোয়াড় অংশ নেয়।

প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ক্যারিবিয়ানরা প্রথম উইকেটে সংগ্রহ করে ১০১ রান। কাইরন পাওয়েলকে ৪৩ রানের আউট করে এই জুটি ভাঙেন স্পিনার নাজমুল ইসলাম। তবে পাওয়েল আউট হলেও শাই হোপ দলে ১ বছর পর ফেরা ড্যারেন ব্রাভোকে নিয়ে ৫৯ রানের আরও একটি জুটি গড়েন। ব্রাভো যখন আউট হন তখন ওয়েস্ট ইন্ডিজের সংগ্রহ ২৪ ওভারে ১৫৯।

কিছুক্ষণ পরই ফের আঘাত হানেন নাজমুল। এবার তিনি ফেরান ৮৯ রান করা হোপকে। স্কোরবোর্ডে ৪ রান যোগ করেই মাশরাফির শিকার হন মারলন স্যামুয়েলস। দলীয় ১৭৬ রানের মাথায় ০ রানে রোভম্যান পাওয়েল আউট হলে দ্রুত ৫ উইকেট হারিয়ে বেশ বড় ধাক্কাই খায় ক্যারিবিয়ানরা। তবে এরপর শিমরন হেটমায়ার ও রোস্টন চেসের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে বড় সংগ্রহের দিকে যায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

হেটমায়ার আউট হওয়ার আগে ২৭ বলে ৩৩ রান করেন। শেষদিকে ফ্যাবিয়ান অ্যালেনের ৩২ বলে ৪৮ ও রোস্টন চেসের ৫১ বলে ৬৫ রানের উপর ভিত্তি করে ৩৩১ রান সংগ্রহ করে ক্যারিবিয়ানরা।

মাশরাফি ৮ ওভারে ৩৭ রান দিয়ে নিয়েছেন একটি উইকেট, ১০ ওভারে ৫৫ রানে ২ উইকেট পেয়েছেন রুবেল। এছাড়া হাসান রানা দুইটি ও নাজমুল ইসলাম দুইটি উইকেট নিয়েছেন।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক হয়ে খেলতে থাকেন টাইগারদের দুই ওপেনার তামিম ইকবাল ও ইমরুল কায়েস। ৫ ওভারেই এই দু’জন স্কোরবোর্ডে যোগ করেন ৫০ রান।

তবে নবম ওভারে ২৫ বলে ২৭ রান করে চেসের বলে আউট হয়ে সাজঘরে ফেরেন কায়েস। এরপর সৌম্য সরকারকে নিয়ে তাণ্ডব চালাতে থাকেন তামিম ইকবাল। ৩২ বলে ৭ চার ও ১ ছয়ে তুলে নেন ফিফটি। আউট হওয়ার আগে ১৩ চার ও ৪ ছয়ে করেন ১০৭ রান।

বাংলাদেশের সংগ্রহ তখন ২৪ ওভার শেষে ২ উইকেটে ১৯৯ রান। এরপর অন্য কোনো ব্যাটসম্যান দাঁড়াতে না পারলেও একাই বিসিবিকে এগিয়ে নিতে থাকেন সৌম্য সরকার। টেস্টে বাজে পারফর্ম করা এই খেলোয়াড় ফিফটি করতে খেলেন মাত্র ৪৩ বল।

আর তার সেঞ্চুরি করতে লেগেছে ৭৯ বল। এটি ওয়ানডেতে তার টানা তৃতীয় সেঞ্চুরি। এর মাঝে আরিফুল হক ২১ ও মাশরাফি ২২ রানের একটি ইনিংস খেললে বাংলাদেশের সংগ্রহ দাড়ায় ৪১ ওভারে ৩১৪-৬। এমন সময় আলোকস্বল্পতার কারণে খেলা বন্ধ হয়ে গেলে ডিএল ম্যাথডে বাংলাদেশকে ৫১ রানে জীয় ঘোষণা করা হয়।

মন্তব্য লিখুন :