সেই ভুলের পর প্রথম মুখ দেখালেন ডি গিয়া

ঘরের মাঠে ১-০ গোলের হার। ফিরতি লেগে প্রতিপক্ষের মাঠে গিয়ে সেটা হয়ে যায় ৩-০। দুই লেগ মিলিয়ে ৪-০ গোলের হারে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ থেকে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের বিদায়। বিশেষ করে দ্বিতীয় লেগে বার্সেলোনার ঘরের মাঠে দাঁড়াতেই পারেনি রেড ডেভিলরা। এর মধ্যে আবার যদি থাকে ভুল, সেটা নিয়ে অনেক বেশি সমালোচনা হবে, সেটাই স্বাভাবিক।

ভুল করা মানুষটির নাম ডেভিড ডি গিয়া, ম্যান ইউর গোলরক্ষক। স্প্যানিশ এই গোলরক্ষকের ভুলেই দ্বিতীয় গোলটা হজম করতে হয় ম্যান ইউকে। লিওনেল মেসির নেওয়া সাধারণ একটি শট ফেরাতে পারেননি ডি গিয়া। শটটি হাত ফসকে তার শরীরের নিচ দিয়ে গিয়ে জালে জমা হয়। এমন ভুল ডি গিয়া নিজেও সহজে মেনে নিতে পারেননি। ড্রেসিং রুমে ফিরেই সতীর্থদের কাছে ক্ষমা চান তিনি।

ওই ভুলের প্রভাবটা ভালোই পড়েছিল ডি গিয়ার ওপর। যে কারণে কোথাও দেখা মিলছিল না তার। অবশেষ ডি গিয়াকে ম্যানচেস্টারের রাস্তায় দেখা গেছে। বাগদত্তা ইডার্নে গার্সিয়াকে নিয়ে মধ্যাহ্নভোজে গিয়েছিলেন স্প্যানিশ এই তারকা গোলরক্ষক। রবিবার এভারটনের বিপক্ষে ম্যাচের আগের দুইদিন স্প্যানিশ গায়িকা, মডেল, টিভি উপস্থাপক গার্সিয়াকে নিয়ে খানিকটা মধুর সময়ই কাটিয়েছেন তিনি।

মেসির নামের পাশে যোগ হওয়া দ্বিতীয় গোলটি যে ডি গিয়ার ভুলেই হয়েছে, সেটা আর কাউকে বলে দিতে হয়নি। ডি গিয়া নিজেই স্বীকার করে সতীর্থদের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করেছিলেন। ম্যাচের পরে ম্যান ইউ গোলরক্ষক বলেছিলেন, তার ওই ভুলটা না হলে ম্যান ইউ ম্যাচটাও জিততে পারত।

এভারটনের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে দলকে জয়ে ফেরানোর চেষ্টা ছিল ডি গিয়ার। সেটা করতে গোলপোস্টের নিচে দাঁড়িয়ে সব চেষ্টাই করেছেন তিনি। তবু ফল পক্ষে না আসার সম্ভাবনাই বেশি। কারণ প্রিমিয়ার লিগের এই ম্যাচের ৭৪ মিনিটের মধ্যেই ৪ গোল হজম করেছে রেড ডেভিলরা।

মন্তব্য লিখুন :