সরে দাঁড়ালেন সেরেনা

প্রথম রাউন্ডে সুইডিশ প্রতিদ্বন্দ্বী রেবেকা পিটারসনকে স্ট্রেট সেটে উড়িয়ে দিয়ে ক্লে-কোর্টে অভিযানটা শুরু করেছিলেন ভালোই। কিন্তু দ্বিতীয় রাউন্ডের লড়াইয়ে বোন ভেনাস উইলিয়ামসের মুখোমুখি হওয়ার আগে বাধ সাধল হাঁটুর পুরনো চোট। ফলে টুর্নামেন্টের মাঝ পথেই ফের নাম প্রত্যাহার করতে বাধ্য হলেন ২৩টি গ্র্যান্ড স্লামের মালকিন।

টুর্নামেন্ট কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে ইতালিয়ান ওপেন থেকে সেরেনার নাম প্রত্যাহারের বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।

ডব্লুটিএকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে সেরেনা জানান, বাঁ হাঁটুতে পুরোনো ব্যথা অনুভব করায় টুর্নামেন্ট থেকে নাম প্রত্যাহারে বাধ্য হচ্ছি। আমি আমার অনুরাগীদের মিস করব, মিস করব আমার অন্যতম প্রিয় টুর্নামেন্টকে। আপাতত রিহ্যাবের মধ্যে দিয়ে ফরাসি ওপেনের জন্য নিজেকে প্রস্তুত করব। আগামী বছর ফের দেখা হবে ইতালিয়ান ওপেনে।

ফরাসি ওপেন শুরুর আগে সুস্থ হওয়ার জন্য হাতে দুই সপ্তাহের মতো সময় পাবেন সেরেনা। কিন্তু টানা তিনটি টুর্নামেন্টের মাঝপথে চোটের কারণে ছিটকে যাওয়ার বিষয়টি ভাবাচ্ছে এই মার্কিন তারকাকে। ইন্ডিয়ান ওয়েলসের তৃতীয় রাউন্ডে গ্যাব্রিয়েল মুগুরুজার বিরুদ্ধে ম্যাচ চলাকালীন, এরপর মার্চে মিয়ামি ওপেনের তৃতীয় রাউন্ডের আগে হাঁটুর চোটের কারণে টুর্নামেন্ট থেকে নিজেকে সরিয়ে নেন সেরেনা।

এরপর ২০১৬ সালের পর ফের রোমে খেলতে নেমেছিলেন উইলিয়ামস। শেষবার ক্যারিয়ারের চতুর্থ ইতালিয়ান ওপেনের খেতাব জিতেছিলেন তিনি। চলতি ইতালিয়ান ওপেনে সুইডিশ প্রতিদ্বন্দ্বী রেবেকাকে ৬-৪, ৬-২ স্ট্রেট সেটে বিধ্বস্ত করেন দুর্দান্ত শুরু করেন সেরেনা। দ্বিতীয় রাউন্ডের লড়াইয়ে দিদি ভেনাস উইলিয়ামসের মুখোমুখি হওয়ার কথা থাকলেও হাঁটুর পুরনো ব্যথা টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে দিল তাঁকে।

মন্তব্য লিখুন :