সবচেয়ে অভিজ্ঞ দল নিয়ে বিশ্বকাপে যাচ্ছে বাংলাদেশ

এবার অভিজ্ঞতার দিক দিয়ে বাংলাদেশই সেরা। দলে রয়েছেন বিশ্বকাপের সবচেয়ে অভিজ্ঞ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। তার ক্যারিয়ার প্রায় ১৮ বছরের। মাশরাফি ছাড়াও দলে আছেন এমন আরও চারজন যাদের অভিজ্ঞতা ১০ বছরেরও বেশি।

২০০৬ সালে একসাথে অভিষেক হয় বাংলাদেশ জাতীয় দলের দুই স্তম্ভ মুশফিকুর রহিম ও সাকিব আল হাসানের। তাদের ১ বছর পর অভিষেক হয় তামিম ইকবাল ও মাহামুদুল্লাহ রিয়াদের। এর মধ্যে তামিম ছাড়া বাকি দু’জন খেলেছেন দুই শতাধিক ম্যাচ। তামিমও ২০০ ম্যাচ খেলার কাছেই আছেন।

তামিমের কিছুদিন পর অভিষেক হওয়া রিয়াদ আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারে ১৮০ ম্যাচ খেলেছেন। সব মিলিয়ে এই চারজনের অভিজ্ঞতা ৬০ বছরেরও বেশি। তাদের প্রত্যেকেরই আছে তিনটি করে বিশ্বকাপ খেলার অভিজ্ঞতা।

এছাড়াও রুবেল হোসেন ওয়ানডে খেলার অভিজ্ঞতা আছে ১০ বছরের। সৌম্য সরকার, সাব্বির রহমান, মোস্তাফিজুর রহমান, লিটন দাস, মেহেদি মিরাজও ৪ বছরের বেশি সময় ধরে খেলছেন আন্তর্জাতিক অঙ্গনে। বাংলাদেশের মধ্যে এবার সবচেয়ে অনভিজ্ঞ আবু জায়েদ রাহী ও মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন। রাহীর অভিষেক হয় এ মাসেই। সাইফের অভিষেক হয়েছে গত বছর।

বাংলাদেশের পর সবচেয়ে অভিজ্ঞ ভারত দল। তাদের এমন চারজন আছেন যারা ১০ বছর ধরে খেলছেন। তবে তাদের দলে রয়েছে এমন অনেক নতুন মুখ যাদের ২ বছরের বেশি অভিজ্ঞতা নেই। সেই হিসেবে বাংলাদেশই সবচেয়ে অভিজ্ঞ দল নিয়ে বিশ্বকাপে যাচ্ছে।

মন্তব্য লিখুন :