রাসেল আমাকে দেখে লজ্জা পায়: মুস্তাফিজ

২০১৬ সালের আইপিএলে কলকাতা নাইট রাইডারর্সে আন্দ্রে রাসেলকে দুর্দান্ত এক ইয়র্কারে মাত্র ২ রানে বোল্ড করেছিলেন সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের হয়ে সেবছর আইপিএল মাতানো মুস্তাফিজুর রহমান। তিন বছর পর টনটনে বিশ্বকাপের মঞ্চেও দেখা গিয়েছে একই চিত্র। ক্যারিবিয়ান এই অলরান্ডারকে কোন রান করার আগেই সাজঘরে ফিরিয়েছেন মুস্তাফিজ। বিধ্বংসী এই ক্যারিবিয়ানের বার বার উইকেট তুলে নেয়ার পর মুস্তাফিজ জানিয়েছেন, তাঁকে মোকাবেলা করতে আন্দ্রে রাসেল লজ্জা পান।

বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজ ম্যাচের আগে টাইগার কোচ স্টিভ রোডস জানিয়েছিলেন তাঁদের জন্য সব থেকে বড় হুমকি আন্দ্রে রাসেল। এই রাসেলকেই বাংলাদেশের বাচা মরার ম্যাচে শূন্য রানে বিদায় করেছেন পেসার মুস্তাফিজ। 

ইনিংসে ৪০তম ওভার পর্যন্ত ম্যাচের নিয়ন্ত্রন ওয়েস্ট ইন্ডিজদের পক্ষেই ছিল। সেই সময় বোলিংয়ে এসে ওভারে ২ উইকেট তুলে নিয়ে ম্যাচের মোড় ঘুড়িয়ে দেন মুস্তাফিজুর রহমান। বাঁহাতি এই পেসারের ৩ উইকেট নেয়ার দিন জেসন হোল্ডারের দল ৩২১ রানের পুঁজি পেলেও সাকিব আল হাসানের সেঞ্চুরিতে ৭ উইকেটের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে বাংলাদেশ। 

রাসেল শুধু আজকে না এর আগেও অনেক বার আউট করেছি, ও আমাকে দেখলে একটু লজ্জা পায় আসলে, বলেন মুস্তাফিজ।

বাংলাদেশের বাঁচা মরার ম্যাচে বল হাতে শুরুটা ভালো হয় নি মুস্তাফিজের। প্রথমে তাঁর উপর চড়াও হয়ে খেলেছেন প্রতিপক্ষ দলের ব্যাটসম্যানরা। এরপর অবশ্য ঠিকই ৩ উইকেট তুলে নিয়ে ঘুরে দাঁড়িয়েছেন তিনি।

ওই সময় তো সবাই মারতে শুরু করসিল। আমাকে সে সময় বোলিং দিয়েছে আমি চেষ্টা করেছি, মুস্তাফিজ জানান।

মন্তব্য লিখুন :