মুছে গেল ম্যাকগ্রার নাম, শচীনের নাম থাকবে তো?

এক বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ উইকেট নেওয়ার বিশ্বরেকর্ডটি ছিল অস্ট্রেলিয়ার সাবেক পেসার গ্লেন ম্যাকগ্রার দখলে। ২০০৭ বিশ্বকাপে তিনি নিয়েছিলেন ২৬টি উইকেট। তার সেই বিশ্বরেকর্ড ভেঙে দিয়েছেন তারই স্বদেশী মিচেল স্টার্ক। এবারের বিশ্বকাপে তিনি নিয়েছেন ২৭ উইকেট। আর এর মধ্যে দিয়েই বিশ্বরেকর্ড থেকে মুছে যায় ম্যাকগ্রার নাম।

এক বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ রান করার রেকর্ডটি ভারতের কিংবদন্তী ব্যাটসম্যান শচীন টেন্ডুলকারের দখলে। তবে তার রেকর্ডটিও ভেঙে যেতে পারে এবারের বিশ্বকাপে।

২০০৭ বিশ্বকাপে ২৬ উইকেট নেন ম্যাকগ্রা। এ জন্য তাকে খেলতে হয় ১১ ম্যাচ। এবারের বিশ্বকাপে ১০ ম্যাচ খেলেছেন স্টার্ক। তবে উইকেট নিয়েছেন ম্যাকগ্রার চেয়ে একটি বেশি। ম্যাকগ্রা ১৩.৭৩ গড়ে নিয়েছিলেন ২৬ উইকেট। তবে স্টার্কের গড় ২১ এর চেয়ে বেশি। ২০০৭ বিশ্বকাপে ৮১ ওভার বল করেন ম্যাকগ্রা। স্টার্ক এবার করেছেন ৯২.৩ ওভার।

তবে ম্যাকগ্রা ওই বিশ্বকাপে একবারও ৫ উইকেট পাননি। এবার দুইবার ৫ উইকেট নিয়েছেন স্টার্ক। এর আগেও একবার ৫ উইকেট নিয়েছিলেন তিনি। যে কারণে বিশ্বকাপে সবচেয়ে বেশিবার ৫ উইকেট নেওয়ার বিশ্বরেকর্ডটি তার দখলে আছে।

ভারতের কিংবদন্তী ব্যাটসম্যান শচীন টেন্ডুলকার ২০০৩ বিশ্বকাপে ১১ ম্যাচে করেছিলেন ৬৭৩ রান। এবার সে রেকর্ডটি হুমকির মুখে ফেলে দেন সাকিব আল হাসান। ৮ ম্যাচ থেকেই তিনি করেন ৬০৬ রান। তবে সেমিফাইনালে উঠতে না পারায় সাকিব রেকর্ডটি ভাঙতে পারেননি। এরপর রোহিত ৮ ম্যাচে ৬৪৮ রান করে ফেলেছিলেন। তবে সেমিতে ১ রান করায় ও হারায় তিনিও রেকর্ডটি হাতছাড়া করেন। একই অবস্থা ডেভিড ওয়ার্নারেরও। ২৭ রানের জন্য তিনিও ভাঙতে পারেননি রেকর্ড।

তবে কেন উইলিয়ামসন, জো রুট, আর জনি বেয়ারস্টোর কাছে এই রেকর্ড ভাঙার সুযোগ আছে। এ জন্য উইলিয়ামসনের দরকার ১২৬ রান, রুটের ১২৫ রান আর বেয়ারস্টোর ১৭৮ রান। এখন দেখা যাক শচীনের বিশ্বরেকর্ডটি কেউ ভাঙতে পারে কিনা।

মন্তব্য লিখুন :