ইনজুরির কারণে বিশ্বকাপে প্রত্যাশিত ফল হয়নি: মিরাজ

দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়ে উড়ন্ত সূচনা করেছিল বাংলাদেশ। এরপর ওয়েস্ট ইন্ডিজ আর আফগানিস্তানকে পরাজিত করে সাত ম্যাচে তিন জয়ে ৭ পয়েন্ট নিয়ে সেমিফাইনালের স্বপ্ন দেখেছিল মাশরাফি বিন মুর্তজার নেতৃত্বাধীন দলটি। কিন্তু শেষ দুই ম্যাচে ভারত-পাকিস্তানের বিপক্ষে টানা হেরে আট নম্বর পজিশনে থেকে বিশ্বকাপকে বিদায় জানায় টাইগাররা।

ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে প্রত্যাশিত ফল না পাওয়ার জন্য ক্রিকেটারদের ইনজুরি আর ভাগ্যকেই দুষছেন মেহেদী হাসান মিরাজ।

বিশ্বকাপ শেষে দেশে ফেরার আগে বেসরকারী টেলিভিশন যমুনা টিভিকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে জাতীয় দলের এ অফ স্পিনার বলেন, বিশ্বকাপে প্রত্যাশিত ফল না পাওয়ার পেছনে অন্যতম কারণ হলো ভাগ্য। ইংল্যান্ডে আমাদের ভাগ্য ফেবার করেনি।

বিশ্বকাপে জাতীয় দলের একাধিক তারকা ক্রিকেটার চোটাক্রান্ত হয়েছিলেন। এনিয়ে মিরাজ বলেন, মাশরাফি ভাই আয়ারল্যান্ড সিরিজের পর থেকেই হ্যামস্ট্রিং ইনজুরিতে ছিলেন। মুশফিক ভাইও একটার পর একটা ইনজুরিতে পড়েছেন। তারপর মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ভাইও চোটাক্রান্ত হয়েছেন। তামিম ভাই ইনজুরিতে পড়েছেন।

মিরাজ আরও বলেন, এতসব ইনজুরি থাকা সত্ত্বেও শেষ পর্যন্ত আমরা লড়াই করতে পেরেছি। এটাই আমার কাছে সবচেয়ে ভালো লাগা।

বিশ্বকাপে ব্যক্তিগতভাবে তেমন কোনো সাফল্য পাননি মিরাজ। ৭ ম্যাচে ৬৭ ওভার বোলিং করে ৫.০৮ ইকোনোমিতে ৩৪১ রান খরচ করে শিকার করেন মাত্র ৬ উইকেট। ব্যাট হাতেও তেমন কোনও সাফল্য পাননি।

বিশ্বকাপে নিজের পারফরম্যান্স নিয়ে এ অলরাউন্ডার বলেন, একজন স্পিনার হিসেবে আমার টার্গেট ছিল ভালো জায়গায় বোলিং করা। আর রান সেভ করা। আমি কখনই চিন্তা করিনি উইকেট শিকারের। টার্গেট ছিল ভালো জায়গায় বল করা আর ডটবল বল দেয়া। হয়তো অনেক বেশি উইকেট পাইনি। আমার কাছে মনে হয় আমি আমার শতভাগ দেয়ার চেষ্টা করেছি।

মন্তব্য লিখুন :