আমার বউকে নিয়ে কিছু বললে আইনগত ব্যবস্থা: নাসির

সম্প্রতি বিয়ে করেছেন ক্রিকেটার নাসির হোসেন। তামিমা তাম্মি নামে এক কেবিন ক্রুর সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন তিনি। এরপর জানা যায় তামিমার আরকেটি সংসার আছে। স্বামী ও ৮ বছরের মেয়েও আছে।

এ নিয়ে দেশজুড়ে শুরু হয় আলোচনা। এর মাঝেই নাসির ও তামিমার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন তামিমার আগের স্বামী। সামাজিক মাধ্যমে বক্তব্য দেন নাসিরের সাবেক প্রেমিকা সুবাহ। এসব বিতর্ক নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছেন নাসির ও তামিমা।

বুধবার সংবাদ সম্মেলন করে নাসির বলেন, আমার স্ত্রীর দিকে কেউ আঙুল তুললে মেনে নেবে না।

নাসির বলেন, এতদিন ও শুধু তামিমা ছিল। আজ থেকে তামিমা হোসেন। আমি চাইব না কেউ কোনোভাবে ওর বিরুদ্ধে কিছু বলুক। যারাই যেখান থেকে কিছু বলবে আমি আইনগত ব্যবস্থা নেব।

নাসির বলেন, তামিমাকে নিয়ে কেউ যেন বাজে কথা না বলে। আমরা শরীয়ত মতে বিয়ে করেছি। নাসির আরও জানান, আমরা সবাইকে জানিয়ে বিয়ে করেছি। আমি তামিমার পূর্বের বিয়ের কথা জানতাম এবং তার ডিভোর্সের কথাও আমি জানতাম।

নাসির আরও বলেন, আমরা যাই করেছি ইসলামী শরীয়ত মতে করেছি। আমরা কিছু লুকানোর চেষ্টা করতাম, তাহলে অনুষ্ঠান করে বিয়ে করতাম না। আমরা যা করেছি সব লিগ্যাল ভাবেই করেছি। আমরা অন্যায় কিছু করিরি।

এদিকে সংবাদ সম্মেলনে তামিমা সুলতানা তাম্মি বলেন, সাবেক স্বামী রাকিবকে তালাক দিয়েই ক্রিকেটার নাসিরকে বিয়ে করেছি। বিয়ে এবং সন্তান থাকা ছাড়া বাকি সব অভিযোগ মিথ্যা বলে জানিয়েছেন ক্রিকেটার নাসির হোসেনের সদ্য বিবাহিত স্ত্রী তামিমা সুলতানা তাম্মি।

উল্লেখ্য, ব্যাভিচার ও মানহানির অভিযোগ এনে ক্রিকেটার নাসির হোসেন ও তার সদ্য বিবাহিত স্ত্রী তামিমা সুলতানা তাম্মির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন তামিমার প্রথম স্বামী মো. রাকিব হাসান। বুধবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ জসিমের আদালতে তিনি এ মামলা দায়ের করেন।