বাবাকে খুন করে মেয়েকে রাতভর ধর্ষণ

বাবাকে খুনের পর মেয়েকে ধর্ষণ করার ঘটনা ঘটেছে ভারতে। অপমানে আত্মহত্যা করেছে ধর্ষণের শিকার তরুণী।

সোমবার (৩ ডিসেম্বর) রাতে আসামের শিবসাগর জেলায় এ ঘটনা ঘটেছে। পরে পুলিশ মূল অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করেছে।

জানাগেছে, স্থানীয় মাছ ব্যবসায়ী দাদু হোসেন প্রায়ই ওই তরুণীকে প্রেমের প্রস্তাব দিত। এতে রাজি হয়নি সে। এর জেরে সোমবার মধ্যরাতে তরুণীর বাড়ির বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয় ওই মাছ ব্যবসায়ী। এরপর পিছনের দরজা দিয়ে বাড়িতে ঢুকে প্রথমে তরুণীর বাবাকে কুঠার দিয়ে আঘাত করে হত্যা করে।

এরপর সে ওই তরুণীকে কয়েকদফা ধর্ষণ করে। ধর্ষণের পর তাকে বেধড়ক মারধরও করা হয়। এতে জ্ঞান হারিয়ে ফেলে নির্যাতিতা। পরদিন সে পুলিশের কাছে গিয়ে অভিযোগ জানায়। এরপর বাড়ি ফিরে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে।

পুলিশ জানায়, মানসিক অবসাদ থেকেই আত্মহননের পথ বেছে নিয়েছেন তিনি। নির্যাতিতার অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ অভিযুক্ত দাদু হোসেনকে গ্রেপ্তার করেছে।

মন্তব্য লিখুন :