হঠাৎ চীন সফরে কিম, চিন্তায় যুক্তরাষ্ট্র

চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের আমন্ত্রণে বেইজিং গেছেন উত্তর কোরিয়ার সর্বাধিনায়ক কিম জং উন। এতে বেশ অশ্বস্তিতে পড়েছে যুক্তরাষ্ট্র। কারণ কয়েকদিন আগেই আমেরিকাকে ‘বিকল্প পথ’ খুঁজে নেওয়ার হুমকি দিয়েছিলেন কিম।

উত্তর কোরিয়ার সরকারি সংবাদমাধ্যম কেসিএনএ জানিয়েছে, স্ত্রী রি সোল্ জু ও সেনার শীর্ষ আধিকারিকদের সঙ্গে সোমবার ট্রেনে করে চীন যান উন। কিমকে স্বাগত জানাতে রেল স্টেশনে উপস্থিত হন চীন সরকারের শীর্ষ কর্মকর্তা ও সেনাবাহিনীর শীর্ষ কর্মকর্তারা।

চীনের সরকার নিয়ন্ত্রিত সংবাদমাধ্যম জিনহুয়া সূত্রে খবর, বৃহস্পতিবার পর্যন্ত চীনে থাকবেন কিম। আর্থিক নিষেধাজ্ঞা-সহ একাধিক বিষয়ে আলোচনা হবে দুই কমিউনিস্ট দেশের রাষ্ট্রপ্রধানদের মধ্যে।

ধারণা করা হচ্ছে, আন্তর্জাতিক আর্থিক নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার জন্য আমেরিকার উপর চাপ বাড়াতে চাইছেন কিম। এছাড়াও ১৯৫০ থেকে চলে আসা দুই কোরিয়ার মধ্যে যুদ্ধের আনুষ্ঠানিক সমাপ্তি ঘোষণাও চাইছেন তিনি। তাই চীনের সঙ্গে সম্পর্ক আরও মজবুত করছেন কিম। এছাড়াও, এই সফরে যুক্তরাষ্ট্রের সাথে করা পরমাণু চুক্তি নিয়েও কথা হবে দুেই দেশের প্রেসিডেন্টের। যে কারণে বেশ দুশ্চিন্তায় আছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

পারমাণবিক নিরস্ত্রীকরণ নিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুনের সঙ্গেও আলোচনা সেরেছেন কিম। তবে পরমাণু নিরস্ত্রীকরণে রাজি হওয়া সত্ত্বেও আমেরিকা উত্তর কোরিয়ার উপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তোলেনি। এ কারণেই মূলত চীন সফরে গেলেন কিম জং উন।

মন্তব্য লিখুন :