শ্রীলঙ্কায় হামলা: সন্দেহের তালিকায় যে সংগঠন

শ্রীলঙ্কার রাজধানী কলম্বোসহ দেশটির আটটি স্থানে বোমা হামলায় অন্তত ১৯০ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন ৪ শতাধিক মানুষ। হামলাগুলোর করা হয় গির্জা ও পর্যটক থাকে এমন সব হোটেলে।

এ হামলার দায়ে এখনো কোনো সংগঠন স্বীকার করেনি। তবে ধারণা করা হচ্ছে উগ্রপন্থী মুসলিম গোষ্ঠী ন্যাশনাল তাওহীদ জামায়াত (এনটিজে) এ হামলায় যুক্ত রয়েছে।

প্রাথমিক তদন্ত থেকে জানা গেছে, সাংরি-লা হোটেলে হামলার আগে ২০ এপ্রিল ৬১৬ নাম্বার কক্ষে দুজন ইসলামী চরমপন্থার সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তি অবস্থান নেন। হোটেলের একটি সিসিটিভি ফুটেজে দেখা গেছে ৬১৬ নাম্বার কক্ষে থাকা সন্দেহভাজন ওই দুই ব্যক্তি হোটেলের ক্যাফেটেরিয়া ও করিডরে বোমা বিস্ফোরণ ঘটনা। ঘটনার পর থেকে তাদের কোনো খোঁজ মিলছে না।

তদন্তকারীরা সন্দেহ করছেন, সন্দেহভাজন ওই দুই ব্যক্তি ২৫ কেজি ওজনের সি-৪ ধরনের বিস্ফোরকের মাধ্যমে সাংরি-লা হোটেলে আত্মঘাতী বোমা হামলা করেন। ডেইলি মিরর বলছে, অভিযুক্ত দুই হামলাকারী হোটেলেরে যে কক্ষটিতে ছিলেন সেটি ভাঙার পর তদন্তকর্মকর্তারা সেখানে ইসলামী চরমপন্থীদের ব্যবহৃত কিছু উপাদান খুঁজে পেয়েছেন।

এদিকে, দেশটির পুলিশ প্রধান পুজুথ জয়াসুন্দরা বিদেশি গোয়েন্দা সংস্থার বরাতে গত ১১ এপ্রিল হামলা হতে পারে এমন সতর্ক বার্তা দেন বলে খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা এএফপি।

ওই সতর্কবার্তায় বলা হয়, উগ্রপন্থী মুসলিম গোষ্ঠী ন্যাশনাল তাওহীদ জামায়াত (এনটিজে) শ্রীলঙ্কার প্রধান গির্জাগুলোয় আত্মঘাতী হামলার পরিকল্পনা করছে।

গোষ্ঠীটি কলম্বোয় ভারতীয় হাইকমিশনেও হামলার পরিকল্পনা করেছে বলে এতে বলা হয়।

মন্তব্য লিখুন :