নারীর গোপনাঙ্গ থেকে অস্ত্রোপচারে বের হলো মোটর যন্ত্রাংস, স্বামী গ্রেপ্তার

পরকীয়া সন্দেহে স্ত্রীর উপর অমানবিক নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে ভারতের এক যুবকের বিরুদ্ধে। প্রায় দুই বছর আগে পরকীয়ার অভিযোগ তুলে স্ত্রী গোপনাঙ্গে মোটরসাইকেলের যন্ত্রাংস ঢুকিয়ে দেয় স্বামী। সম্প্রতি তা অস্ত্রোপচার করে বের করা হয়েছে।

জানাগেছে, পরকীয়া সম্পর্কে যুক্ত রয়েছেন স্ত্রী, এই সন্দেহেই স্বামী প্রায়ই নির্যাতন চালাতেন স্ত্রীর উপর। প্রায় দুই বছর আগে একদিন বিষয়টি নিয়ে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া হয়। এরই জেরে স্ত্রীর হাত-পা বেঁধে উলঙ্গ করে যৌনাঙ্গের ভেতর মোটরসাইকেলের একটি প্লাস্টিকের গ্রিপ ঢুকিয়ে দেয় স্বামী। কিন্তু স্ত্রী লজ্জায় এ কথা কাউকে জানাতে পারেননি।

সম্প্রতি মারাত্মক ব্যথা অনুভব করায় বিষয়টি জানাজানি হয়। পরে চিকিৎসকের শারনাপন্ন হন তিনি। পরে তাকে দ্রুত অস্ত্রোপচার করাতে বলা হয়। মঙ্গলবার এই কারণে একটি জটিল অস্ত্রোপচার হয় নিগৃহীতা মহিলার।

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, বহুদিন জরায়ুতে আটকে ছিল ওই গ্রিপ, শরীরের অন্যান্য অংশে ছড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনাও ছিল। জরায়ু থেকে অস্ত্রোপচার করে বের করা হয়েছে। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক।

ঘটনাটি মধ্যপ্রদেশের ইনদওরের। অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

মন্তব্য লিখুন :