হার মেনে নিয়ে পদত্যাগ করছেন রাহুল গান্ধী!

ভারতের ১৭তম লোকসভা নির্বাচনে দেশটির ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দল ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) কাছে হার মেনে নিলেন বিরোধী দল কংগ্রেসের সভাপতি রাহুল গান্ধী। সেইসাথে ফের একবার প্রধানমন্ত্রীর আসনে বসতে যাওয়া নরেন্দ্র মোদিকে শুভেচ্ছা জানান তিনি।

নির্বাচনী ফলাফল পরবর্তী দলীয় অবস্থান জানাতে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার দিকে সংবাদ সম্মেলন ডাকেন তিনি।

হারের দায় স্বীকার করে নিয়ে কংগ্রেস সভাপতি বলেন, “জনতাই মালিক। জনতা তাদের রায় দিয়েছে। আমরা সেই দায় মাথা পেতে নিলাম।

এদিকে, ভারতীয় একটি গণমাধ্যম সংবাদ প্রকাশ করেছে, দলীয় প্রধানের পদ থেকে ইস্তফার ইচ্ছাপ্রকাশ করেছেন কংগ্রেস সভাপতি। ইতিমধ্যেই, রাহুলের ঘনিষ্ঠদের সেকথা জানিয়ছেন। আজ মা সোনিয়া এবং বোন প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে আলোচনাও করেছেন রাহুল।

২০১৪ সালের মতোই অবস্থা হাত-শিবিরের। ওয়ানড় থেকে রেকর্ড ভোটে জিতলেও আমেঠি থেকে স্মৃতি ইরানির কাছে নিজেই হারের মুখে রাহুল। ৫৪২ আসনের লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোট ৩৪২ আসনে এগিয়ে রয়েছে। অন্যদিকে দেশটির প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন ইউপিএ জোট পেয়েছে ৯১ আসন। বিজেপি একাই ৩০০'র বেশি আসনে জয় পেতে যাচ্ছে। এর আগে ২০১৪ সালে বিজেপি ২৮২ আসনে জয় পেয়েছিল বিজেপি, জোটসঙ্গীদের নিয়ে দলটির আসন দাঁড়িয়েছিল ৩৩৬।

সংবাদ সম্মেলনে রাহুল বলেন, যে সমস্ত কংগ্রেস কর্মীরা সততার সঙ্গে লড়াই করেছেন তাদের শুভেচ্ছা। আমাদের লড়াই বিচারধারার লড়াই। দুটি আলাদা আলাদা দৃষ্টিভঙ্গির লড়াই। এই লড়াই চলবে। ভালবাসা কখনও হারে না। আত্মবিশ্বাস হারাবেন না। আমার বিশ্বাস দেশের বহু মানুষ এখনও কংগ্রেসের বিচারধারায় বিশ্বাস রাখে।

তিনি বলেন, আজ আমি কী বলছি, বা ভাবছি সেটা গুরুত্ব রাখে না। আজই ফলাফল এসেছে। আমাদের লড়াই করতে হবে। সাংবাদিক বৈঠকে কংগ্রেস সভাপতি তাঁর রাজনৈতিক প্রতিদ্বন্দ্বী স্মৃতি ইরানিকেও আমেঠি থেকে জয়ের জন্য শুভেচ্ছা জানান। তবে, কংগ্রেসের পরবর্তী রাজনৈতিক পদক্ষেপ কী হবে সে বিষয়ে স্পষ্ট কোনো নির্দেশ দেননি রাহুল।

মন্তব্য লিখুন :