পশ্চিমবঙ্গে মমতা সমর্থকদের ওপর একের পর এক হামলা

লোকসভা নির্বাচনের ফল প্রকাশের পর থেকেই পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন এলাকায় তৃণমূল কংগ্রেসের ওপর হামলা চালানো হচ্ছে। আর এ হামলা চালাচ্ছে বিজেপির কর্মী-সমর্থকরা।

অভিযোগ, কোচবিহার, পশ্চিম মেদিনীপুর, বীরভূম-সহ একাধিক জেলায় বিজেপির হাতে আক্রান্ত হচ্ছেন তৃণমূল কংগ্রেস কর্মীরা। তাঁদের মারধর করা হচ্ছে। ভেঙে দেওয়া হচ্ছে ঘর-বাড়ি। দলীয় কার্যালয়ও দখলের চেষ্টা চলছে।

তবে সব অভিযোগ অস্বীকার করেছে বিজেপি। তাদের পালটা দাবি, এসবই শাসকদলের অন্তর্দ্বন্দ্বের ফল।

ভোটের ফলাফল প্রকাশ হতেই দেখা যায় উত্তরবঙ্গের বেশিরভাগ আসনই গিয়েছে বিজেপির দখলে। তারপর থেকেই বিভিন্ন জায়গায় আক্রান্ত হচ্ছেন তৃণমূল কংগ্রেস কর্মীরা। পশ্চিম মেদিনীপুরের কলাইকুণ্ডায় তৃণমূলের পার্টি অফিস ভাঙচুর করা হয়, পশ্চিম মেদিনীপুরের নারায়ণগড়ে তৃণমূলকর্মীর স্ত্রীকে মারধর, দিনহাটার সিতাইয়েও তৃণমূলের ব্লক কার্যালয় ভাঙচুর, স্থানীয় নেতা অশোক কুমার রায়ের বাড়িতে ভাঙচুর ও লুটপাট করা হয়েছে বলে খবর।

হাওড়ার শালিমার এলাকাতেও তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষের ফলে দুই দলের একাধিক কর্মীর আহত হয়। ঘটনায় দুই পুলিশকর্মী আহত হয়েছেন। শুক্রবার সকাল থেকেই এলাকায় রয়েছে চাপা উত্তেজনা। চলছে পুলিশের টহলদারি। পাশাপাশি সিআরপিএফ সদস্যরাও টহল দিচ্ছে।

মন্তব্য লিখুন :