৩ বছর পর নাসার বিজ্ঞানীকে মুক্তি দিল তুরস্ক

তিন বছর আটক রাখার পর নাসার সাবেক বিজ্ঞানী সারকান গোলজকে বুধবার রাতে মুক্তি দিয়েছে তুরস্ক সরকার।

রাশিয়া থেকে এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা কেনা নিয়ে যখন আমেরিকা ও তুরস্কের মধ্যে চরম টানাপড়েন চলছে তখন নাসার বিজ্ঞানীর মুক্তির খবর বের হলো। খবর নিউইয়র্ক টাইমসের।

মার্কিন পররাষ্ট্র দফতর এ খবর নিশ্চিত করে জানিয়েছে, আমেরিকা তুর্কি সরকারের এ পদক্ষেপকে স্বাগত জানিয়েছে।

মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের নারী মুখপাত্র মরগান ওরতেগাস বলেন, নাসার বিজ্ঞানীকে মুক্তি দিয়ে সঠিক কাজটি করায় আমরা তুর্কি সরকারের প্রশংসা করছি। আমরা গোলজের মামলাটি ঘনিষ্ঠভাবে পর্যবেক্ষণ করবো।

তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান ও মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প দ্বিপক্ষীয় বিষয় নিয়ে টেলিফোনে কথা বলার একদিন পরই নাসার বিজ্ঞানীকে মুক্তি দেয়া হলো।

২০১৬ সালে ব্যর্থ সেনা অভ্যুত্থানের পর ৩৯ বছর বয়সী তুর্কি বংশোদ্ভূত মার্কিন নাগরিক সারকান গোলজকে তুরস্ক থেকে আটক করা হয়। সে সময় তিনি পরিবারের সঙ্গে দেখা করার জন্য তুরস্ক সফর করছিলেন। সশস্ত্র গোষ্ঠীর সদস্য হওয়ার অভিযোগে চলতি বছরের গোড়ার দিকে প্রাথমিকভাবে গোলজ দোষী সাব্যস্ত হন এবং তাকে সাড়ে সাত বছর কারাদণ্ড দেয়া হয়। পরে একটি আপিল আদালত তার সাজার মেয়াদ কমিয়ে পাঁচ বছর করে।

আমেরিকায় স্বেচ্ছায় নির্বাসনে থাকা ফেতুল্লাহ গুলেনের সংগঠনের সঙ্গে নাসার এ বিজ্ঞানীর সম্পর্ক রয়েছে বলে তুর্কি আদালত জানিয়েছে।

মন্তব্য লিখুন :