স্বামীর কাটা মাথা নিয়ে থানায় হাজির স্ত্রী

স্বামীর অত্যাচার সইতে না পেরে তাকে নৃসংহভাবে খুন করেছে স্ত্রী। শুধু তাই নয়, স্বামীর কাটা মাথা নিয়ে সে সোজা হাজির হয় স্থানীয় থানায়।

গত মঙ্গলবার এই ঘটনা ঘটেছে ভারতের আসামের লখিমপুর জেলায়।

জানা যায়, অভিযুক্ত মহিলার নাম গণেশ্বরী বার্কাটাকি। বয়স ৪৮ বছর। বছর পঞ্চান্নর মুধিরাম দীর্ঘদিন ধরেই তার উপর শারীরিক ও মানসিক অত্যাচার চালাত। সেই অমানবিক অত্যাচারের হাত থেকে নিজেকে বাঁচাতেই এই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয় সে।

পুলিশি জেরায় গণেশ্বরী বলে, অনেক বছর ধরে স্বামী আমায় মারধর করত। ভেবেছিলাম, স্বামীকে ছেড়ে চলে যাব। কিন্তু পাঁচ সন্তানের মুখের দিকে তাকিয়ে সেটা পারিনি। কিন্তু যখন অত্যাচার সহ্যের সীমা ছাড়াল তখন বাধ্য হয়েই ওকে খুন করি। আমি ওকে না মারলে ও-ই আমায় মেরে ফেলত।

পুলিশ জানায়, স্বামীকে খুন করে থানায় আত্মসমর্পণ করে ওই মহিলা। অভিযুক্তর বয়ান সত্যি কিনা, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। বুধবার মহিলাকে আদালতে তোলা হলে জেল হেফাজতের নির্দেশ দেওয়া হয়।

মন্তব্য লিখুন :