বাংলাদেশের বিরুদ্ধে নয়া অভিযোগ তুললেন মমতা

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অভিযোগ করেছেন, বাংলাদেশ বাঁধ তৈরির করার ফলে শুকিয়ে যাচ্ছে আত্রাই নদী।

মঙ্গলবার বিধানসভায় এ অভিযোগ করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

পাশাপাশি তাঁর আরও অভিযোগ, বিষয়টি নিয়ে ঢাকার সঙ্গে গুরুত্ব দিয়ে আলোচনা করছে না নয়াদিল্লি।

বিরোধীদের প্রশ্নের উত্তরে মমতা বলেন, “বাঁধ তৈরির ফলে, দক্ষিণ দিনাজপুরের বাসিন্দাদের ভোগান্তি হচ্ছে। রাজ্য থেকে কেন্দ্রকে সবকিছু পাঠানো হয়েছে, তবুও কেন্দ্র বিষয়টি দেখছে, এবং এটিকে হাল্কাভাবে নিচ্ছে”।

শিলিগুড়ি থেকে বাংলাদেশ হয়ে আবারও দক্ষিণ দিনাজপুরে এসেছে আত্রেয়ী নদী। এই নদীর পানির ওপরেই নির্ভর করে চাষের কাজ থেকে শুরু করে জীবিকা নির্বাহ করেন মৎস্যজীবীরা।

বিধানসভায় মুখ্যমন্ত্রী বলেন, বিষয়টি নিয়ে আমি বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে কথা বলেছি।

এর আগে তিস্তা পানিবন্টন চুক্তি নিয়ে কথা বলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বিধানসভায় বলেন, পরিস্থিতি যদি অনুকূলে হত, তাহলে “বন্ধুত্বপূর্ণ” প্রতিবেশী দেশের সঙ্গে পানিবণ্টন মেনে নিতেন। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “তিস্তার  পানিবণ্টন মেনে না নেওয়ায় তারা দুঃখ পেয়েছে...আমার ক্ষমতা থাকলে, নিশ্চিতভাবেই আমি তাদের সঙ্গে তিস্তার পানিবণ্টন মেনে নিতাম ...আমার কোনও সমস্যা নেই...বাংলাদেশ আমাদের বন্ধু...এ নিয়ে কোনও সন্দেহ নেই”।

মন্তব্য লিখুন :