ভারতের হাতে তুলে দেয়া হবে পলাতক জাকির নায়েককে!

বিতর্কিত ধর্মীয় প্রবক্তা ভারতীয় নাগরিক জাকির নায়েককে আর আশ্রয়ে রাখতে চায় না মালয়েশিয়া সরকার। ধারণা করা হচ্ছে তাকে ভারতের হাতে তুলে দেবে মাহাথির মোহাম্মদের সরকার।

মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মাহাথির বলেছেন, অন্য কোনো দেশ জাকির নায়েককে নিতে চায় না বলেই তাকে আমাদের এখানে রাখতে হচ্ছে। তবে জাকির নায়েকের কট্টর দর্শন আমাদের দেশের জন্য হুমকি।

২০১৬ সালে ঢাকার হলি আর্টিজান হামলার পর উঠে আসে পিস টিভির মালিক জাকির নায়েকের নাম। কারণ হামলাকারী বাংলাদেশি জঙ্গিরা পিস টিভি চ্যানেলে জাকিরের ভাষণ থেকে অনুপ্রাণিত হয়েছিল। এছাড়াও কাশ্মীরের জঙ্গিদের মধ্যে জাকির নায়েকের জনপ্রিয়তা ছড়ায় দ্রুত।

এরপরই পিস টিভি বন্ধ করে দেয় ভারত সরকার। বিতর্কের মাঝে ২০১৬ সালেই জাকির নায়েক মুম্বাই ছেড়ে সৌদি আরব চলে যান। এরপর তার বিরুদ্ধে পরোয়ানা জারি করা হয়। পরে তিনি চলে যান মালয়েশিয়া। তীব্র আন্তর্জাতিক চাপ উপেক্ষা করেও মালয়েশিয়া সরকার তাকে আশ্রয় দেয়।

তুরস্কে এক ভাষণে মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের দেশে ভিন্ন ভিন্ন বর্ণের ও ধর্মের মানুষ আছে। আমরা এমন কাউকে চাই না, যার ধর্ম সম্পর্কে কট্টর চিন্তাভাবনা রয়েছে। তাকে আবার অন্য কোথাও পাঠানোও কঠিন। কারণ অনেক দেশ তাকে চায় না।

এরপরই জাকির নায়েকের পরবর্তী গন্তব্য কোথায় সেই বিষয়ে তৈরি হয়েছে প্রশ্ন। মনে করা হচ্ছে, ভারতের হাতে তুলে দেওয়া হতে পারে তাকে।

মন্তব্য লিখুন :