গাঁজা সেবনে শীর্ষে ভারত ও পাকিস্তানিরা

দূষণের পর এবার আরও একটি লজ্জাজনক তালিকায় প্রথম সারিতে ঠাঁই পেল ভারতের রাজধানী দিল্লি। গাঁজা সেবনের নিরিখে বিশ্বে তৃতীয় স্থানে দিল্লি।

এই তালিকায় একা দিল্লি নেই। দিল্লিকেও ছাপিয়ে গিয়েছে পাকিস্তানের শহর করাচি। গাঁজা সেবনের নিরিখে বিশ্বে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে করাচি। আর এই তালিকায় শীর্ষস্থানে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্ক।

এবিসিডি নামের একটি সংস্থার করা মাদক সংক্রান্ত রিপোর্টে বলছে, দিল্লিতে ২০১৮ সালে গাঁজা বিক্রি হয়েছে প্রায় ৩৮.২ মেট্রিক টন, অর্থাৎ ৩৮ হাজার ২৬০ কেজি। করাচি অবশ্য এই নিরিখে দিল্লির থেকে অনেকটাই এগিয়ে।

করাচিতে গতবছর গাঁজা বিক্রি হয়েছে প্রায় ৪২ মেট্রিক টন, অর্থাৎ প্রায় ৪২ হাজার কেজি। নিউ ইয়র্ক এশিয়ার দুই শহরকে অনেকটাই পিছনে ফেলেছে। নিউ ইয়র্কে গতবছর গাঁজা বিক্রি হয়েছে, ৭৭.৪ মেট্রিক টন। দিল্লি ছাড়াও প্রথম দশে রয়েছে ভারতের আরও এক শহর। মুম্বই রয়েছে তালিকার ষষ্ঠ স্থানে। মুম্বইয়ে গতবছর গাঁজা বিক্রি হয়েছে প্রায় ৩২.৪ মেট্রিক টন।

এবিসিডির এই রিপোর্ট প্রকাশ্যে আসার পর বেশ উদ্বেগে সমাজবিজ্ঞানীরা।অনেকে বলছেন, এই রিপোর্টেই প্রমাণিত হচ্ছে, আমাদের যুবসমাজ বিপথে চালিত। যদিও, নেটিজেনরা এই রিপোর্টকে খুব একটা গুরুত্ব দিচ্ছেন না। বরং, করাচি দিল্লির থেকে মাদক সেবনে এগিয়ে থাকায় রসিকতা করছেন তাঁরা। কেউ কেউ বলছেন, অর্থনীতি বা প্রযুক্তিতে না হোক, কোনও কিছুতে তো ভারতকে হারাল পাকিস্তান।

মন্তব্য লিখুন :