ধর্ষণের অভিযোগে নেপালের সাবেক স্পিকার গ্রেপ্তার

ধর্ষণের অভিযোগে নেপালের সাবেক স্পিকার কৃষ্ণ বাহাদুর মহারাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে পার্লামেন্টের এক নারী কর্মীকে ধর্ষণ করার অভিযোগ আনা হয়েছে। 

অভিযোগ ওঠার পর নিরপেক্ষ তদন্তের স্বার্থে তিনি গত মঙ্গলবার পদত্যাগ করেন।

ওই নারী কর্মীর অভিযোগ, গত ২৯ সেপ্টেম্বর মহারা মদ্যপ অবস্থায় তার বাসায় ঢুকে তাকে যৌন নিপীড়ন করেন। এই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে কাঠমান্ডুর একটি আদালত মহারার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন। 

ওই নারী গণমাধ্যমকে বলেন, আমি ভাবতেও পারিনি এমন কিছু ঘটতে পারে। তিনি আমার ওপর ঝাঁপিয়ে পড়েন… আমি পুলিশকে খবর দেয়ার হুমকি দেবার পর তিনি চলে যান।

অভিযোগ ওঠার পর মহারার কার্যালয় এক বিবৃতিতে এই অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করে৷ তার চরিত্র হনন করতে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে এই অভিযোগ আনা হয়েছে বলে দাবি করা হয়।

রবিবার বিকালে মহারা মাত্র দুই ঘণ্টার জন্য সরকারি বাসভবনের বাইরে ছিলেন বলেও বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়৷ এছাড়া রবিবার সন্ধ্যায় মহারা ঘরেই ছিলেন বলে বিবৃতিতে জানানো হয়।

২০১৭ সালের নির্বাচনে কমিউনিস্ট পার্টি বেশি আসনে জয়লাভের পর স্পিকার নির্বাচিত হন মহারা। এর আগে তিনি উপ-প্রধানমন্ত্রী, তথ্যমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেছেন। ১৯৯৬ থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত সরকারের বিরুদ্ধে মাওবাদী বিদ্রোহে সক্রিয় ছিলেন মহারা।

মন্তব্য লিখুন :