মিয়ানমারে বিক্ষোভে গুলি, নিহত ২

মিয়ানমারের সামরিক অভ্যুত্থানের বিরুদ্ধে বিক্ষোভে গুলি চালিয়েছে পুলিশ। এতে অন্তত দু’জন নিহত এবং আরও কয়েক ডজন মানুষ আহত হয়েছেন। এ নিয়ে দেশটিতে জান্তাবিরোধী বিক্ষোভে প্রাণ হারালেন সাতজন।

রবিবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) দেশটির স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানায় কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা।

প্রতিবেদনে বলা হয়, জান্তা সরকারের বাধা উপেক্ষা করে দেশটির বিভিন্ন শহরে জড়ো হয় হাজার হাজার জনতা। এ সময় সেনা শাসনের অবসান ও সু চির মুক্তি চেয়ে বিক্ষোভ দেখান তারা।

দেশটির প্রধান শহর ইয়াঙ্গুন এবং দক্ষিণাঞ্চলের শহর দাওয়েতে বিক্ষোভ সবচেয়ে মারাত্মক আকার নেয়। এ সময় আন্দোলনকারীদের ওপর স্টান গ্রেনেড ও কাঁদানে গ্যাস ব্যবহার করে এবং ফাঁকা গুলি ছোড়ে পুলিশ। এ সময় দু’জন বিক্ষোভকারী নিহত হন।

মিয়ানমার নাও মিডিয়া গ্রুপ টুইটারে একটি ভিডিও পোস্ট করে, যেখানে ইয়াঙ্গুনের হলেদান সেন্টার সড়কের মোড়ের কাছে আহত এক ব্যক্তিকে পড়ে থাকতে দেখা যায়। পোস্টে বলা হয়, ওই ব্যক্তিকে ‘বুকে গুলি করা হয়েছে’।

বার্তাসংস্থা রয়টার্স জানায়, ওই ব্যক্তিকে হাসপাতালে নেওয়ার পর তার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন কর্তব্যরত চিকিৎসক।

গত ১ ফেব্রুয়ারি সামরিক অভ্যুত্থানের মাধ্যমে মিয়ানমারের নিয়ন্ত্রণ নেয় দেশটির সেনাবাহিনী।  এ ঘটনার পর পরই বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে ওঠে মিয়ানমার। সেনাবাহিনীর চোখ রাঙানি এবং পুলিশের দমনপীড়ন উপেক্ষা করে বিক্ষোভ চালিয়ে যাচ্ছেন মিয়ানমারের সব শ্রেণি-পেশার মানুষ।