কর্মচারীদের আন্দোলনে ফের আচল বেরোবি

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে (বেরোবি) কর্মচারীদের আন্দোলনের আড়াই মাসের মাথায় ফের অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতি শুরু করেছে কর্মচারীরা।

মঙ্গলবার (২৫ জুন) তৃতীয় দিনের মত আন্দলোন করছে তারা। 

কর্মচারীদের দাবিসমূহ হলো- কর্মচারী বান্ধব পদোন্নতি/আপগ্রেডেশন নীতিমালা বাস্তবায়ন, ৪৪ মাসের বকেয়া বেতন-ভাতা প্রদান এবং ১০ম গ্রেড প্রাপ্ত ২৫ জনকে কর্মকর্তা পদমর্যদা প্রদান ও মাস্টার রোল কর্মচারীদের চাকুরী স্থায়ী করণ।

এর আগে উল্লেখিত দাবিসমূহ সহ মোট ১০ দফা দাবিতে কর্মচারীরা চলতি বছরের মার্চের ১৩ তারিখ থেকে এপ্রিলের ১ তারিখ পর্যন্ত টানা প্রায় ২০ দিন কর্মবিরতি পালন করে। তখন অচল হয়ে পড়েছিল বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক ও প্রশাসনিক কার্যক্রম।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনে গিয়ে দেখা যায়, কর্মচারীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল কার্যক্রম থেকে বিরত থেকে রেজিস্ট্রারের রুমের সামনে অবস্থান নিয়ে শ্লোগান দিচ্ছেন।

এ বিষয়ে কর্মচারী সমন্বয় পরিষদের প্রধান সমন্বয়ক মাহবুবার রহমান বাবু বলেন, রবিবার অর্ধদিবস কর্মবিরতি পালন করেছি। সোমবারেও দিনব্যাপী কর্মবিরতি পালন করেছি। তার ধারাবাহিকতায় আজও আন্দোলন চলছে। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে আমাদের সাথে এখন পর্যন্ত কোনো ধরনের যোগাযোগ বা দাবিপূরণের আশ্বাস দেয়া হয়নি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের মুখপাত্র তাবিউর রহমান প্রধান বলেন, কর্মচারীরা মূল যে ২টি দাবিতে আন্দোলন করছে তা বাস্তবায়নের পথে, প্রক্রিয়া চলছে।