ইবিতে আবার ফিরছে সান্ধ্যকালীন কোর্স

পুনরায় সান্ধ্যাকালীন কোর্স চালু হচ্ছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি)। 

মঙ্গলবার (২৫ জুন) বিশ্ববিদ্যালয়ের ১১৬ তম একাডেমিক কাউন্সিলে এ সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়।

একাডেমিক কাউন্সিল সূত্রে, মঙ্গলবার (২৫ জুন) বেলা সাড়ে এগারটা থেকে উপাচার্য অধ্যাপক ড. রাশিদ আসকারীর সভাপতিত্বে শুরু হয় ১১৬ তম একাডেমিক কাউন্সিলের বৈঠক। বৈঠকে রিভিউ কমিটির পর্যালোচনার ভিত্তিতে কিছু শর্ত সাপেক্ষে এই কোর্স চালুর ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। নিয়মতান্ত্রিকভাবে এ সুপারিশ পরবর্তীতে বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেটে তোলা হবে। সিন্ডিকেট এ বিষয়ে চুড়ান্ত অনুমোদন দিবেন। 

যে শর্তের উপর এ কোর্স চালুর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে তা হলো, কোন বিভাগে এক বছরের বেশি সেশন জট থাকলে ওই বিভাগে সান্ধ্যকালীন কোর্স খোলা যাবে না, সপ্তাহে দুইদিন (শুক্রবার ও শনিবার) ক্লাস নিতে হবে, স্ব-স্ব অনুষদ কর্তৃক মনিটরিং সেল গঠন এবং নিয়মিত শিক্ষার্থীদের শাস্তির বিধানের ন্যায় নকলের অপরাধে সান্ধ্যকালীন কোর্সের শিক্ষার্থীদের শাস্তির বিধান চালুকরণ।

এ বিষয়ে উপাচার্য অধ্যাপক ড. রাশিদ আসকারী বলেন, রিভিউ কমিটির পর্যালোচনার ভিত্তিতে কিছু শর্ত সাপেক্ষে  আমরা পুনরায় এ কোর্স চালুর ব্যাপারে নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

বৈঠকে উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. শাহিনুর রহমান, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. সেলিম তোহা, রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) এস এম আব্দুল লতিফ, অনুষদীয় ডীন ও বিভিন্ন বিভাগের সভাপতিসহ জৈষ্ঠ্য অধ্যাপকগণ উপস্থিত ছিলেন।

জানা যায়, ২০১৮ সালের ২৯ জুলাই বিশ্ববিদ্যালয়ের ১১৩ তম একাডেমিক কাউন্সিলে বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষকদের সম্মতিতে সান্ধ্যকালীন কোর্স বাতিলের সিদ্ধান্ত নেন প্রশাসন। পরবর্তীতে ওই বছরের ২ অক্টোবর ২৪২ তম সিন্ডিকেট সভায় সান্ধ্যকালীন কোর্স বাতিল করা হয়। পাশাপাশি নির্দিষ্ট সময়ে সান্ধ্যকোর্সের চলমান শিক্ষার্থীদের কোর্স শেষ করার নির্দেশ দেন। 

পরবর্তীতে বর্তমান শিক্ষক সমিতির দাবির পরিপ্রেক্ষিতে গত ১১ মার্চ ১১৫ তম একাডেমিক কাউন্সিলে সান্ধ্যকালীন কোর্স পুনরায় চালুর ব্যাপারে নীতিগত সিদ্ধান্ত নেয়া হয় প্রশাসন। পাশাপাশি সান্ধ্যকোর্সের মান উন্নয়নের জন্য তিন সদস্য বিশিষ্ট রিভিউ  কমিটি গঠন করা হয়।