ইবির আইন বিভাগের নতুন সভাপতির দায়িত্ব গ্রহণ

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) আইন বিভাগের নতুন সভাপতি হিসেবে অধ্যাপক ড. নুরুন নাহার দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন। বর্তমান সভাপতি অধ্যাপক ড. জহুরুল ইসলামের মেয়াদ শেষ হওয়ায় গত ২৮ মে জেষ্ঠ্যতার ভিত্তিতে তিনি এ দায়িত্বপদে নিযুক্ত হন। 

বুধবার (১৯ জুন) বেলা ১২ টায় বিভাগীয় সভাপতির কার্যালয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে দায়িত্ব গ্রহণ ও দায়িত্ব হস্তান্তর অনুষ্ঠিত হয়। 

এ সময় বিদায়ী সভাপতি অধ্যাপক ড. জহুরুল ইসলামকে বিদায়ী ক্রেস্ট এবং নতুন সভাপতি অধ্যাপক ড. নুরুন নাহারকে ফুল দিয়ে বরণ করে নেওয়া হয়।

বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আরমিন খাতুনের সঞ্চালনায় দ্বায়িত্ব গ্রহন ও হস্তান্তর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন-উর-রশিদ আসকারী। বিশেষ অতিথি  হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. শাহিনুর রহমান ও কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. সেলিম তোহা। 

এ সময় উপস্থিত ছিলেন আইন অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. রেবা মন্ডল, অধ্যাপক ড. শাহজাহান মন্ডল, বিভাগের অন্যান্য শিক্ষকবৃন্দ এবং আইন অনুষদভুক্ত অন্য দুই বিভাগের শিক্ষকবৃন্দ।  

বিভাগ সূত্রে, গত ২৭ মে বর্তমান সভাপতি অধ্যাপক ড. জহুরুল ইসলামের  মেয়াদ শেষ হয়। পূর্বের মেয়াদ শেষ হওয়ায় গত ২৮ মে ড. নুরুন নাহার নতুন সভাপতি হিসেবে দ্বায়িত্ব গ্রহন করেন। আগামী তিন বছরের জন্য তিনি এ দ্বায়িত্ব পালন করবেন।

ড. নুরুন নাহার ২০০০ সালের আগস্ট মাসে এ বিভাগে প্রভাষক পদে নিয়োগ লাভ করেন।পরে ২০০৩ সালে সহকারী অধ্যাপক, ২০০৮ সালে সহযোগী অধ্যাপক এবং ২০১৩ সালে অধ্যাপক হিসেবে পদোন্নতি লাভ করেন। অধ্যাপনাকালে তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সদস্য, বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাসে প্রথম কোন নারী ডিন, ইবি শিক্ষক সমিতির কার্যনির্বাহী  সদস্য, বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হলের হাউজ টিউটর সহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ  দ্বায়িত্ব দক্ষতা ও নিষ্ঠার সাথে পালন করেছেন। 

নতুন সভাপতি হিসেবে অনুভূতি ব্যক্ত করে ড. নুুরুন নাহার বলেন, ‘বিভাগের সভাপতির দ্বায়িত্ব একটি বিরাট দ্বায়িত্ব। আমার প্রথম কাজ হবে সেশনজট মুক্ত বিভাগ উপহার দেওয়া। দ্বিতীয়ত, আমি বিভাগের সকল শিক্ষক-শিক্ষার্থীকে সাথে নিয়ে এক বন্ধুত্বপূর্ণ পরিবেশে বিভাগকে এগিয়ে নিতে চাই। এ লক্ষ্যে সবার সহযোগীতা ও আন্তরিকতা একান্ত কাম্য।