ফেসবুক স্ট্যাটাসের জন্য আর বহিষ্কার করবেন না বশেমুরবিপ্রবির উপাচার্য

গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) উপাচার্য খোন্দকার নাসির উদ্দিন শিক্ষার্থীদের বাকস্বাধীনতা নিশ্চিতের অঙ্গিকার করেছেন। 

বুধবার (১৯ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে ১১টা থেকে আড়াইটা পর্যন্ত উপাচার্যের অপসারণের দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা আন্দোলন করেন।

তবে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ আন্দোলনের মুখে ১৪টি সিদ্ধান্ত নিয়ে রেজিস্ট্রার মো. নুরউদ্দিন আহমেদ স্বাক্ষরিত একটি আদেশ প্রকাশ করেছেন।

ওই আদেশের ৪ নম্বরে বলা হয়েছে, সাধারণ শিক্ষার্থীদের বাকস্বাধীনতার নিশ্চয়তা প্রদান করা হবে এবং ক্ষমার অযোগ্য অপরাধ ছাড়া বহিষ্কার করা হবে না। আর সাধারণ শিক্ষার্থীদের অভিভাবকদের ডেকে এনে অপমান করা হবে না। 

যে ফেসবুকে লেখালেখিকে কেন্দ্র করে এত কিছু, সে বিষয়ে আদেশের ১২ নম্বরে বলা হয়েছে, ফেসবুকে স্ট্যাটাস ও কমেন্টকে কেন্দ্র করে কোনো শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা হবে না। কোনো শিক্ষার্থীকে ফেসবুকে লেখালেখির জন্য বহিষ্কার করবেন না। 

বাকি সিদ্ধান্তগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য—এই আন্দোলনকে কেন্দ্র করে পরবর্তী সময়ে কোনো শিক্ষার্থীর প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ বা বহিষ্কারের ঘটনা ঘটবে না; শিক্ষার্থীদের প্রতি ব্যক্তিগত ক্ষোভ তাদের একাডেমিক জীবনে নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে না এবং এমনটা হলে ওই শিক্ষককে আইনের আওতায় আনা হবে; ভর্তি হওয়ার ১০ বছরের মধ্যে কোনো শিক্ষার্থীকে ক্যাম্পাস থেকে বের হওয়ার নোটিশ দেওয়া হবে না; সব শিক্ষার্থীর নিরাপত্তার দায়িত্ব বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন নেবে; হলে প্রতি সিটের ভাড়া ১৫০ টাকা এবং রুমের ভাড়া ৫০ টাকা করা; ভর্তি ফি সর্বমোট ১৪ হাজার টাকা ও সেমিস্টার ফি ২ হাজার টাকা করা এবং বিভাগ উন্নয়ন ফি বাদ দেওয়া; বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সংসদের নামে যে টাকা দেওয়া হয় তার জবাবদিহি করা হবে।