বগুড়ায় স্ত্রীর লাশ বাড়িতে রেখে স্বামীর পলায়ন

বগুড়ায় সাবিরা বেগম নামে এক গৃহবধূকে শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে স্বামীর বিরুদ্ধে। ঘটনার পর থেকেই পলাতক রয়েছে অভিযুক্তের পরিবার।

বৃহস্পতিবার (১৬ মে) বেলা ১১টায় লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

নিহত সাবিরা বেগম (১৮) বগুড়া সদর উপজেলার নামুজা বগারপাড়া গ্রামের সাব্বির হোসেনের স্ত্রী।

স্থানীয়রা জানায়, এক বছর আগে নামুজা বগারপাড়া গ্রামের সেকেন্দার মহুরীর ছেলে সাব্বির হোসেন তার প্রথম স্ত্রীকে তালাক দেন। এরপর একই গ্রামের খশরু মিয়ার মেয়ে সাবিরা বেগমকে বিয়ে করেন। বিয়ের সময় কোনো যৌতুক লেনদেন না হলেও জামাইকে চাকরি পাইয়ে দেয়ার জন্য টাকা দিয়ে সহযোগিতা করার কথা ছিল।

এদিকে, সাবিরা বিয়ের পর কলেজে ভর্তি হয়ে লেখাপড়া শুরু করলে তা নিয়ে স্বামীর সঙ্গে কলহ দেখা দেয়। বৃহস্পতিবার সকালে সাবিরার লাশ বাড়িতে ফেলে রেখে স্বামীসহ বাড়ির লোকজন পালিয়ে যায়। পরে প্রতিবেশীরা থানায় খবর দিলে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে।

বগুড়া সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) রেজাউল করিম বলেন, নিহতের গলায় কালো দাগ দেখা গেছে। পরিবারের সবাই পালিয়ে যাওয়ায় বিস্তারিত কিছু জানা যায়নি। তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।