বগুড়ায় স্বামীর সন্ধান চান খাদিজা

বগুড়ায় আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য পরিচয়ে তুলে নিয়ে যাওয়া হারুণ-উর-রশিদকে ফিরে পাওয়ার আকুতি জানিয়েছেন তার স্ত্রী খাদিজা বেগম।

বুধবার দুপুরে বগুড়া প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ বিষয়ে প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্ট সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।

সংবাদ সম্মেলনে গাবতলীর পাড়াবাইশা গ্রামের আব্দুস সামাদের মেয়ে খাদিজা বেগম জানান, তার সঙ্গে একই উপজেলার হাসনাপাড়ার বাসিন্দা হারুণ-উর-রশিদের প্রায় পাঁচ বছর আগে বিয়ে হয়। তাদের একটি মেয়ে রয়েছে।

তিনি অভিযোগ করেন, বড় বোন আমিজা বেগম এবং তিনি ও তার স্বামী গত ১৪ মে মঙ্গলবার দুপুরে গাবতলী কমার্শিয়াল কাজী মার্কেটে কেনাকাটা করতে যান। এরপর বেলা ৩টার দিকে তারা স্থানীয় বাজারের গেট দিয়ে বাইরে পাকা রাস্তার কাছে যেতেই সাদা পোশাকে তিন ব্যক্তি তার স্বামীকে টেনে-হিঁচরে সিএনজিতে তোলেন। ওই সময় চিৎকার দিলে লোকজন এগিয়ে আসে।

খাদিজা জানান, তখন সাদা পোষাকে থাকা ওই তিন ব্যক্তি পরিচয়পত্র বের করে নিজেদেরকে ডিবি সদস্য বলে পরিচয় দেন এবং হারুণ-উর-রশিদকে নিয়ে চলে যান। পরদিন বুধবার রাতে তার শাশুড়ি রাহেমা বেগম ছেলের সন্ধান চেয়ে গাবতলী থানায় ডায়েরি করতে গেলে কর্মকর্তারা সেটি আবেদন হিসেবে গ্রহণ করেন। তবে ডিবি অফিসসহ আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর অন্য অফিসগুলোতে খোঁজ করা হলেও স্বামীর সন্ধান পাননি তিনি।

আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী যদি তাকে গ্রেপ্তার করে থাকে তাহলে তারা যেন তাকে দ্রুত আদালতে হাজির করেন সে আকুতি জানান খাদিজা।