কক্সবাজারে পাহাড় ধসে স্বামী-স্ত্রী নিহত

কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলায় মধ্যরাতে বসতঘরের ওপর পাহাড় ধসে ঘুমন্ত স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যু হয়েছে। 

শনিবার (১৪ জুলাই) দিবাগত রাত দুইটার দিকে উপজেলার বমুবিলছড়ি ইউনিয়নের বমুরকুল এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

নিহত দুইজন হলেন- মোহাম্মদ ছাদেক (৩২) ও তার স্ত্রী ওয়ালিদা বেগম (২১)। ছাদেক পেশায় দিনমজুর। তিনি কয়েক বছর আগে আলীকদম উপজেলা থেকে বমুরকুল এলাকায় এসে পাহাড়ের নিচে বসতি গড়েন।

স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে চকরিয়ার বমুবিলছড়ি ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান আবদুল মোতালেব বলেন, পাহাড়ে কয়েক দিন ধরে ভারী বৃষ্টি হচ্ছে। গতকাল রাতেও প্রচুর বৃষ্টি হয়। রাত দুইটার দিকে বমুরকুল এলাকায় পাহাড়ের একটি অংশ ধসে একটি বসতঘরের ওপরে পড়ে। এ সময় ঘুমন্ত অবস্থায় মাটিচাপা পড়েন স্বামী-স্ত্রী। স্থানীয় লোকজন মাটি সরিয়ে তাদের মরদেহ উদ্ধার করেন। ঘটনার সময় ঘরটিতে স্বামী-স্ত্রী ছাড়া আর কেউ ছিলেন না।

নিহত ছাদেকের প্রতিবেশী আজিজুল হামিদ বলেন, শব্দ শুনে ঘর থেকে বের হয়ে দেখি, ছাদেকের ঘরের ওপর পাহাড় ধসে পড়েছে। পরে স্থানীয় লোকজন মিলে মাটি সরিয়ে ছাদেক ও তার স্ত্রী ওয়ালিদার মরদেহ উদ্ধার করি।

এ বিষয়ে চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নূরুদ্দীন মুহাম্মদ শিবলী নোমান বলেন, স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় স্বামী-স্ত্রীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। পাহাড়ি ঢলের কারণে একধরনের বিচ্ছিন্ন অবস্থায় রয়েছে বমুবিলছড়ি ইউনিয়ন। ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় বসবাস করা অন্য লোকদের সেখান থেকে সরানোর কাজ চলছে।