বগুড়ায় নদীতে ডুবে দুই ছাত্রের মৃত্যু

বগুড়ায় করতোয়া নদীতে ডুবে আবু সুফিয়ান সাদ ও সোহেল রানা নামের দুই কলেজ ছাত্রের মৃত্যু হয়েছে।

বুধবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা প্রায় ঘণ্টাব্যাপী ওই নদীতে অভিযান চালিয়ে তাদের মরদেহ উদ্ধার করে।

মৃত্যু আবু সুফিয়ান সাদ শহরের জয়পুরপাড়ার বালু ব্যবসায়ী ইমতিয়াজ আহম্মেদ নান্টুর ছেলে ও সিলেট পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র। সোহেল রানা সদরের শাখারিয়া জঙ্গলপাড়ার আব্দুল কুদ্দুসের ছেলে ও বগুড়া সরকারি আজিজুল হক কলেজ থেকে এইচএসসি পাশ করেন।

সাদের প্রতিবেশী আসিফ হোসেন বলেন, দুপুরে সাদ করতোয়া নদীতে দুই বন্ধুর সঙ্গে গোসল করতে যান। তারা করতোয়া নদী সাঁতার কাটার চেষ্টা করলে সাদ ডুবে যান। অপর দুই বন্ধু তুষার ও সজিব বাড়ি ফিরে খবর দিলে স্থানীয়রা খোঁজাখুঁজি শুরু করে। পরে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা এসে বিকেলে সাদের লাশ উদ্ধার করে।

অপরদিকে, সোহেল একই নদীতে মাছ ধরতে যান। একপর্যায়ে তার হাত থেকে জাল নদীতে পড়ে গেলে তা উদ্ধারের জন্য নদীতে নেমে ডুবে যান। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা স্থানীয়দের সহযোগিতায় নদী থেকে রানার মরদেহ উদ্ধার করে।

বগুড়া সদর থানার পুরিশ পরিদর্শক (তদন্ত) রেজাউল করিম বলেন, দুই ছাত্রের লাশ তাদের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।