পাবনায় বিপদসীমার ওপরে পদ্মার পানি, তলিয়ে যাচ্ছে ফসলি জমি

পাবনার পাকশী হার্ডিঞ্জ ব্রিজ পয়েন্টে পদ্মা নদীর পানি বিপদসীমার ৭ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এর ফলে ওই এলাকায় বন্যা দেখা দিয়েছে। পানি বেড়ে যাওয়ায় তলিয়ে গেছে অনেক ফসলি জমি। পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন শত শত মানুষ।

দীর্ঘ ১৬ বছর পর এই পয়েন্টে পানি বিপদসীমা অতিক্রম করল। সর্বশেষ ২০০৩ সালে এই পয়েন্টে পানি বিপদসীমা অতিক্রম করেছিল।

বুধবার (২ অক্টোবর) দুপুরে পানি পরিমাপ করার পর এ তথ্য জানাযায়।

পাবনা পানি উন্নয়ন বোর্ড উত্তরাঞ্চলীয় পরিমাপ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী জহিরুল ইসলাম জানান, বেলা ১২টায় পদ্মা নদীর পানি বিপদসীমার ১৪ দশমিক ২৮ সেন্টিমিটার অতিক্রম করে। গত ২৪ ঘণ্টায় পানি বেড়েছে ৬ সেন্টিমিটার।

এদিকে পানি বৃদ্ধির ফলে পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন চরাঞ্চলের মানুষ। পানি বাড়ায় ঈশ্বরদীর সাঁড়া, পাকশী ও লক্ষিকুন্ডু ইউনিয়নের চার শ হেক্টর জমির সবজি ও ফসল তলিয়ে গেছে। আরও নতুন নতুন এলাকায় প্লাবিত হওয়ার শঙ্কা দেখা দিয়েছে। পাবিবন্দী মানুষ তাদের গৃহসামগ্রী উঁচু জায়গায় নিয়ে যাচ্ছে।

পাকশী ইউনিয়নের বাসিন্দা রফিকুল জানান, তাদের ইউনিয়নের রূপপুর সড়কের নিচু অংশে ফসলসহ জমি তলিয়ে গেছে। প্রতিদিনই পাকশীর বিভিন্ন স্থানে নতুন করে প্লাবিত হচ্ছে ফসলি জমি।