রাজাকারকে বাঁচাতে ঘুষের প্রস্তাব, বরখাস্ত ওসি মিজানুর

মানবতা বিরোধী অপরাধ মামলার তদন্ত কর্মকর্তাকে ঘুষের প্রস্তাব করে সাময়িক বরখাস্ত হলেন ঝিনাইদহ সদর থানার সাবেক ওসি মিজানুর রহমান খান।

সোমবার (২১ অক্টোবর) গ্রেপ্তার করা ঝিনাইদহ সদর উপজেলার হলিধানী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রশীদ রাজাকারের পক্ষে তদন্তকারীকে ঘুষের প্রস্তাব করেছিলেন তিনি।

ইতিমধ্যে তাকে সিলেট রেঞ্জ ডিআইজির কার্যালয়ে সংযুক্তি (ক্লোজ) করা হয়েছে। ঝিনাইদহের পুলিশ সুপার মো. হাসানুজ্জামান পিপিএম মঙ্গলবার দুপুরে গনমাধ্যম কর্মীদের কাছে এখবর নিশ্চিত করেন।

পুলিশের একটি সূত্র জানায়, ঢাকার এ্যাপলো হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় মানবতাবিরোধী অপরাধ তদন্ত কর্মকর্তা আব্দুর রাজ্জাক খান (বিপিএম সেবা পিপিএম) কে গত পহেলা এপ্রিল ঝিনাইদহ সদর থানার তৎকালীন ওসি মিজানুর রহমান খান ঘুষের প্রস্তাব করেন। ঝিনাইদহ সদর উপজেলার হলিধানী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রশীদ মিয়ার বিরুদ্ধে আনিত মানবতাবিরোধী অভিযোগ থেকে রক্ষার জন্য মোটা টাকা ঘুষের প্রস্তাব নিয়ে ওই হাসপাতালে যান ওসি মিজান।

এ ঘটনায় মানবতাবিরোধী অপরাধ তদন্তকারীকে আব্দুর রাজ্জাক খান নিজে সচিব জননিরাপত্তা বিভাগ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বরাবর লিখিত অভিযোগ করেন। তদন্ত শেষে অভিযোগের প্রাথমিক সত্যতা পাওয়া গেলে গত ৭ অক্টোবর ঝিনাইদহ সদর থানার তৎকালীন ওসি মিজানুর রহমান খানকে চাকরি থেকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।