ফেসবুক লাইভে আসার পর নারী ব্যবসায়ীর মৃত্যু

বরিশালে শিরিন খানম (৩৫) নামে এক নারীর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। তিনি ওষুধ ব্যবসায়ী ছিলেন। 

রবিবার (২৭ অক্টোবর) সাড়ে ১০টায় নগরীর বান্দ রোডে নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ‘শিরিন মেডিকেল হল’-এ অসুস্থ হওয়ার কিছুক্ষণ পর তার মৃত্যু হয়। তবে মৃত্যুর কিছুক্ষণ আগে ফেসবুক লাইভে ব্যবসায়িক নানা সমস্যার কথা তুলে ধরেন শিরিন।

এদিকে বোনকে বিষ প্রয়োগ করে হত্যার অভিযোগে কোতোয়ালি মডেল থানায় মামলা দায়ের করেছেন শিরিনের ভাই ইউসুফ মৃধা।

স্বামীর সঙ্গে বিচ্ছেদ হওয়া শিরিন খানম নগরীর অক্সফোর্ড রোড মিশন এলাকায় থাকতেন ও বান্দ রোডে ওষুধের দোকান চালাতেন। 

রবিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে তিনি নিজ দোকানে অসুস্থ হয়ে পড়েন। এরপর তাকে শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

একাধিক ঘনিষ্ঠজন জানান, মৃত্যুর কিছু সময় আগেও শিরিন ফেসবুক লাইভে ছিলেন। এসময় তিনি তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে তাকে উৎখাতের ষড়যন্ত্র চলছে বলে অভিযোগ করেন।

প্রায় ১৫ দিন আগে শিরিনের দোকানে ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযান চালিয়ে মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ রাখার দায়ে তাকে কারাদণ্ড দেন। দুই দিন কারাভোগের পর তিনি জামিনে মুক্ত হন।

কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি নুরুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করে গণমাধ্যমকে জানান, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। তার ভাইয়ের অভিযোগটির তদন্ত করা হচ্ছে।