আমতলীতে পিটিয়ে স্ত্রীর ২ হাত ভেঙে দিল স্বামী!

বাবার বাড়ি থেকে জুয়া খেলার টাকা এনে দিতে অস্বীকার করায় দু’সন্তানের জননী ছোকানুর বেগমকে পিটিয়ে (৪০) দুই হাত ভেঙে দিয়েছে স্বামী মজিবর মোল্লা।

ঘটনা ঘটেছে রবিবার সকালে আমতলী উপজেলার উত্তর টিয়াখালী গ্রামে। আহত গৃহবধূকে স্বজনরা উদ্ধার করে আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেছে।

জানাগেছে, গত ৩০ বছর পূর্বে মজিবুর রহমান মোল্লার সাথে ছোকানুর বেগমের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই স্বামী মজিবর মোল্লা জুয়া খেলে আসছে বলে এমন অভিযোগ স্ত্রী ছোকানুর বেগমের। যখনই জুয়া খেলার টাকার প্রয়োজন হয় তখনই স্ত্রী ছোকানুর বেগমকে বাবার বাড়ির জমি বিক্রি করে টাকা এনে দিতে চাপ প্রয়োগ করে সে। টাকা না এনে দিলেই নামে নির্যাতন।

রবিবার সকালে স্ত্রীকে বাবার বাড়ি থেকে আবার জমি বিক্রি করে টাকা এনে দিতে বলে মজিবর। স্ত্রী ছোকানুর ওই টাকা এনে দিতে অস্বীকার করে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে মজিবর তাকে (স্ত্রী) বাঁশের লাঠি দিয়ে পেটায়। এমনকি তাকে কুপিয়ে হত্যারও চেষ্টা করে।

আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, আহত ছোকানুরের দুই হাত ভেঙে গেছে। এছাড়াও তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখমের চিহৃ রয়েছে। তার চিকিৎসা চলছে।

আহত ছোকানুর বেগম বলেন, বিয়ের ৩০ বছর ধরেই টাকার জন্য মারধর করে আসছে। সন্তানের মুখের দিকে তাকিয়ে নীরবে সহ্য করেছি।

আহত ছোকানুরের অষ্টম শ্রেণিতে পড়ুয়া কন্যা বলেন, মা টাকা এনে না দিলেই বাবা মাকে মারধর করে।

অভিযুক্ত স্বামী মজিবর মোল্লার সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তার ফোন বন্ধ পাওয়া গেছে।

আমতলী থানার ওসি আবুল বাশার বলেন, খবর পাইনি। পুলিশ পাঠিয়ে খোঁজ খবর নিচ্ছি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।