তাবলীগ জামাতের ১৪ সদস্যকে অচেতন করে চুরি

নোয়াখালীর কবিরহাটে তাবলীগ জামাতের এক সাথী ভাইয়ের বিরুদ্ধে ১৪ জনকে অচেতন করে চুরির অভিযোগ উঠেছে।

উপজেলার বাটইয়া ইউনিয়নের ভূঞারহাট জামে মসজিদে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে এ ঘটনা ঘটে।

পরে স্থানীয়রা আজ সকালে অসুস্থ তাবলীগ জামাতের ১৪ জন সদস্যকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। বর্তমানে তারা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। হাসপাতাল সূত্রে বলছে, তারা সবাই আশঙ্কামুক্ত রয়েছে।

কবিরহাট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মির্জা মোহাম্মদ হাসান বলেন, গত দুই দিন আগে ঢাকার কাকরাইল মসজিদ থেকে তাবলীগ জামাতের ১৫ জন সদস্য এখানে আসে। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে ভাতের সাথে পাতলা ডাল খেয়ে সবাই অচেতন হয়ে পড়ে। এ ঘটনায় তাবলীগ জামাতের ময়মনসিংহের রুবেল নামের এক সদস্য পলাতক রয়েছে। পুলিশ অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী সদস্যরা বলছে, পলাতক রুবেল তাদের জামাতের সফর সঙ্গী ছিল। সে গতকাল রাতে সবাইকে ভাতের সাথে ডাল খাইয়ে ছিল। ভুক্তভোগীরা ধারণা করছে, সে ডালের সাথে অচেতন হওয়ার মতো কোনো দ্রব্য খাইয়ে এ ঘটনা ঘটিয়েছে।

পলাতক রুবেল তাবলীগ জামাতের সাদ গ্রুফের সদস্য বলে দাবি করেন ভুক্তভোগী তাবলীগ জামায়াতের সদস্যরা।