বগুড়ায় বিপুল পরিমাণ ধাতব মুদ্রাসহ গ্রেপ্তার ৯

বগুড়ায় বিপুল পরিমাণ ধাতব প্রাচীন মুদ্রাসহ আন্তর্জাতিক প্রতারক চক্রের ৯ জন সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ।

মঙ্গলবার রাতে শহরের বিভিন্ন স্থান অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তার প্রতারক চক্রের সদস্যরা হলেন- বগুড়া সদর উপজেলার লতিফপুর কলোনী এলাকার মৃত আলিম উদ্দিনের ছেলে আজিজর রহমান (৪৫), শহরদীঘি এলাকার সমজান আলীর ছেলে লিটন প্রাং (৩৫), শিবগঞ্জ উপজেলার মৃত দারাজ আলীর ছেলে রুহুল আমিন (৫২), সৈয়দপুর ভাটরা এলাকার মৃত রইচ উদ্দিনের ছেলে মোঃ সাইদুর রহমান (৫০), নরিয়াল শিয়ালী এলাকার নবাব আলীর ছেলে জহুরুল ইসলাম (৪০), গাবতলী উপজেলার তরফসরতাছ এলাকার ছবেদ আলীর ছেলে আবু নাছের (৪০), পদ্দপাড়া এলাকার মৃত সাইফুল ইসলামের ছেলে রোকন উদ্দি গুটুল (৫০), শাজাহানপুর উপজেলার জোড়ামালা এলাকার নেসির উদ্দিনের ছেলে গোলাম রব্বানী (৪০) ও জয়পুরহাট জেলার কালাই উপজেলার ছবির আলীর ছেলে বাছেদ আলী (৩৮)।

বুধবার বিকাল সাড়ে ৩টায় বগুড়া ডিবি কার্যালয়ের সাংবাদিক সম্মেলনে এই তথ্য জানানো হয়।

জানা যায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় শহরের মোহাম্মদ আলী হাসপাতালের সামনে কিছু ব্যক্তি বৈদেশিক ধাতব মুদ্রা ক্রয়-বিক্রয় করছে এমন তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে প্রতারক চক্রের তিন জনকে গ্রেপ্তার করে ডিবি। এরপর রাতভর বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে আন্তর্জাতিক প্রতারক চক্রের মোট নয় সদস্যকে ৫৮টি কষ্টির ধাতব প্রাচীন মুদ্রা ও ৩টি নকল ধাতব মেটালসহ আটক করা হয়েছে।

জেলা গোয়েন্দা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আছলাম আলী বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে চোরাচালানের সাথে জড়িত মোট নয় জনকে বিপুল পরিমাণ নকল ধাতব প্রাচীন মুদ্রাসহ গ্রেপ্তার করা হয়। যার মধ্যে ৩টি নকল।

তিনি আরও বলেন, তাদের বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে দুপুরে আদালতের মাধ্যমে বগুড়া জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।